ওয়াশিংটন: তাইওয়ানের কাছে ২২০ কোটি ডলারের অস্ত্র বিক্রির অনুমতি দিল মার্কিন সরকার । এসব অস্ত্রের মধ্যে রয়েছে ১০৮টি এম১এ২টি আব্রাহাম ট্যাংক। যখন চিন ও আমেরিকার মধ্যে বাণিজ্যযুদ্ধ ঘিরে দুনিয়া জুড়ে টেনশন সেই সময় তাওইয়ানের কাছে অস্ত্র বিক্রির সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করল ট্রাম্প প্রশাসন।

এছাড়া এই অনুমোদিত অস্ত্রের ভেতরে ২৫০টি স্ট্রিঙ্গার ক্ষেপণাস্ত্রসহ অন্য আরও কিছু অস্ত্র রয়েছে। তাইওয়ানের কাছে দেড় হাজার কোটি ডলারের বেশি মূল্যের অস্ত্র বিক্রি করার কথা ২০১০ সালে ঘোষণা করেছিল মার্কিন সরকার।
মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় পেন্টাগনের নিরাপত্তা সহযোগিতা এজেন্সি সোমবার জানিয়েছে, আমেরিকার জাতীয় অর্থনৈতিক ও নিরাপত্তা স্বার্থে তাইওয়ানের সশস্ত্র বাহিনীকে আধুনিকীকরণ করা হচ্ছে যাতে আস্থাশীল একটি প্রতিরক্ষা সক্ষমতা গড়ে তুলতে পারে। এজেন্সি তাইওয়ানকে ওই অঞ্চলের রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা, সামরিক ভারসাম্য ও অর্থনৈতিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ শক্তি বলে উল্লেখ করেছে।

এদিকে ইতিমধ্যেই তাইওয়ানের কাছে এভাবে মার্কিন অস্ত্র বিক্রির ঘোষণার বিরোধিতা করেছে চিন। তাইওয়ানকে চিন নিজ ভূখণ্ড বলে দাবি করে থাকে।