নয়াদিল্লি: দুশ্চিন্তা বাড়ছে ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি শিল্পের কারণ এইচ-১বি ভিসা নিয়ে আরও কড়া হচ্ছে ডোনাল্ড ট্রাম্প-এর প্রশাসন।

শুক্রবার ওয়াশিংটন থেকে জারি করা বিবৃতিতে বলা হয়েছে, নতুন নীতিতে এইচ-১বি ভিসা মারফত কর্মী নিয়োগের জন্য অতিরিক্ত শর্ত পূরণের। সেক্ষেত্রে প্রমাণ করতে হবে, ওই কাজে ওই কর্মীর বিশেষ দক্ষতা বলেই নিয়োগ করা হচ্ছে৷

আরও পড়ুন: মোদী-মালিয়ার পর আরও এক ব্যাংক প্রতারকের সন্ধান পেল সিবিআই

বর্তমান মার্কিন প্রশাসনের ধারণা, এই ভাবে ভিন্‌দেশি কর্মী নিয়োগের ফলে মার্কিনিদের কাজের সুযোগ সঙ্কুচিত হচ্ছে এবং অনেক মার্কিনি বঞ্চিত হচ্ছেন। তাছাড়া অনেক সময় ওই ভিসা মারফত নিযুক্ত কর্মীদের সঙ্গে নিয়োগকারী সংস্থার বেতন দেওয়ার সম্পর্কও থাকে না। তা আটকাতেই এই বাড়তি কড়াকড়ি।

এদিকে ভারতে তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলির সংগঠন ন্যাসকম জানিয়েছে, নতুন ভিসা নীতির বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে প্রাথমিক ভাবে মনে করা হয়েছে এরফলে জটিলতা বাড়বে। বাড়ছে আরও বেশি কাগজপত্র জমা করার হ্যাপাও।

আরও পড়ুন: ঋণ শোধ অসম্ভব বলে জানিয়ে দিল ‘মামু’ মেহুল

প্রসঙ্গত, এইচ-১বি ভিসা হল কাজের সূত্রে মার্কিনমুলুকে গেলে তখন সেদেশে অস্থায়ী ভাবে থাকার ছাড়পত্র। ওদেশে বরাত পাওয়া কাজ করতে টিসিএস, ইনফোসিস, উইপ্রোর মতো তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলি এই ভিসা ব্যবহার করেই মার্কিন মুলুকে কর্মী পাঠিয়ে থাকে ৷ ফলে এই কড়াকড়িতে চিন্তা বেড়েছে এদেশের তথ্য প্রযুক্তি ক্ষেত্রে৷