নিউইয়র্ক: গ্র্যান্ড স্ল্যাম নিয়ে এখনও অবধি কোনও নিরাপত্তা সংক্রান্ত নির্দেশিকা জারি করা হয়নি। তবু নিরাপদের সঙ্গে প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে নির্ধারিত সূচিতেই অনুষ্ঠিত হবে ইউএস ওপেন। শুক্রবার এমনই আশ্বাস দিল ইউএস ওপেন আয়োজক কমিটি।

ফাঁকা গ্যালারিতে জৈব নিরাপত্তা বলয়ে আগামী ৩১ অগস্ট থেকে ফ্লাশিং মিডো শুরু হওয়ার কথা। মার্কিন মুলুকে সর্বপ্রথম কোভিড১৯ হটস্পট হিসেবে চিহ্নিত হয়েছিল ইউএস ওপেনের আয়োজক শহর নিউ ইয়র্ক। সেখানে সংক্রমণের হার বর্তমানে কমলেও পরিস্থিতি উদ্বেগজনক ফ্লোরিডা, টেক্সাস কিংবা ক্যালিফোর্নিয়ার মতো বড় শহরগুলিতে। পরিস্থিতি আঁচ করে বৃহস্পতিবার ইউএস ওপেন থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন বর্তমান বিশ্বের পয়লা নম্বর মহিলা টেনিস প্লেয়ার অ্যাশলে বার্টি। আর ঠিক তার পরদিন যুক্তরাষ্ট্র টেনিস অ্যাসোসিয়েশন জানিয়ে দিল, ‘ইউএস ওপেন পরিকল্পনামাফিকই অনুষ্ঠিত হবে।’

শুক্রবার ইউএসটিএ জানিয়েছে, ‘সকল প্লেয়ার এবং টুর্নামেন্টের সঙ্গে জড়িত প্রত্যেকের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সর্বোচ্চ নিরাপত্তা প্রদান করাই আমাদের প্রধান লক্ষ্য। আমরা সে বিষয়ে যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী। ইউএসটিএ খুব শীঘ্রই নিরাপত্তা সংক্রান্ত নির্দেশিকা প্রকাশ করবে।’ তাঁরা আরও জানিয়েছে, ‘ইউএসটিএ মেডিক্যাল অ্যাডভাইসরি টিম এবং নিরাপত্তা টিমের সঙ্গে নিউ ইয়র্ক শহরে কাজ করছে। টুর্নামেন্ট ভেন্যু এবং প্লেয়ারদের থাকার হোটেলে ইতিমধ্যেই স্বাস্থ্য সংক্রান্ত নিরাপত্তা বিষয়ে একটি শক্তিশালী রূপরেখা তৈরি করা হয়েছে।’ একইসঙ্গে নিউ ইয়র্ক শহরকে বর্তমানে দেশের মধ্যে অন্যতম নিরাপদ বলে অভিহিত করেছে তাঁরা।

মার্কিন কিংবদন্তি সেরেনা উইলিয়ামস এবং গতবারের চ্যাম্পিয়ন কানাডার বিয়াঙ্কা আন্দ্রেস্কু ইতিমধ্যেই গ্র্যান্ড স্ল্যামে অংশ নেওয়ার ব্যাপারে সবুজ সংকেত দিয়েছেন। তবে বৃহস্পতিবার ইউএস ওপেন থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন অজি তারকা অ্যাশলে বার্টি। দেশীয় সংবাদমাধ্যমে বার্টি জানিয়েছেন, ‘আমি এবং আমার টিম চলতি বছর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কোনও টুর্নামেন্ট এবং ইউএস ওপেন খেলতে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ইউএস ওপেন আমার খুব পছন্দের একটি ইভেন্ট তবু সেখানে গেলে একটা ঝুঁকি থেকেই যাচ্ছে।

করোনা আবহে আমি এবং আমার টিম সেখানে যাওয়ার বিষয়টি নিয়ে মোটেই নিরাপদ বোধ করছি না।’ নোভাক জকোভিচ কিংবা রাফায়েল নাদালের মতো প্রথম সারির পুরুষ টেনিস প্লেয়াররা এখনও তাঁদের চূড়ান্ত অবস্থা স্পষ্ট করেননি ফ্লাশিং মিডো নিয়ে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ