তেহরান: করোনা নিয়ে ব্যস্ত সারা বিশ্ব। খোদ আমেরিকায় মৃতের সংখ্যা ছুঁয়ে ফেলেছে ৪৭ হাজার। কিন্তু তবুও ঠান্ডা যুদ্ধের বিরাম নেই বিশ্ব জুড়ে। ইরান-আমেরিকা হুমকি-পালটা হুমকিতে ব্যাপক উত্তাপ ছড়াল পারস্য উপসাগরে।

বুধবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট টুইটারে জানিয়েছিলেন, সমুদ্রে যদি ইরানের সব কিংবা কোনো একটি গানবোট মার্কিন জাহাজকে হয়রানি করে, তবে তাদের সবকটি জাহাজকে গুলি করে ধ্বংস করে দিতে আমি নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আর বৃহস্পতিবারে এরই পালটা দিলেন ইরানের আইআরজিসির প্রধান হোসেন সালামি।

বিপ্লবী গার্ডের প্রধান হোসেন সালামি তাঁদের নৌবাহিনীকে আদেশ দিয়েছেন, পারস্য উপসাগরে ইরানের সামরিক বা বেসামরিক জাহাজের নিরাপত্তায় হুমকি দেওয়া যে কোনও আমেরিকান সন্ত্রাসী জাহাজ ধ্বংস করতে।

আর এর জেরেই পারস্য উপসাগরে নতুন করে সঙ্ঘাতের আবহ সৃষ্টি হয়েছে। একদিকে যেমন ডোনাল্ড ট্রাম্প হুমকি দিতেব কোনও কার্পন্য করেন না, তেমনি ছেড়ে দেওয়ার পাত্র নন তেহরানের বিপ্লবী গার্ডের প্রধান হোসেন সালামিও। সব মিলিয়ে খমতাধর দুই শক্তির চাপে রাজনীতির পারা চড়ছে পারস্য উপসাগর ঘিরে।

উল্লেখ্য, এই মুহূর্তে করোনার জেরে মারাত্মক বিপাকে পড়েছে ডোনাল্ড ট্রাম্পের দেশ। এহেন পরিস্থিতিতে পারস্য উপসাগরে ইরানের সঙ্গে তাঁদের সংঘাত আবহ খুব একটা স্বস্তি দেবে না আমেরিকাকে।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব