ওয়াশিংটনঃ  একেই বলে ভুল! আর সেই ভুলের মাশুল গুণতে হচ্ছে ২০ কোটি মার্কিন নাগরিককে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে আমেরিকায়। আর এই ঘটনায় রীতিমত চাপে ২০ কোটি মার্কিন নাগরিক।

মূলত অসাবধনতা বশতই এই ঘটনাটি ঘটে গিয়েছে। রিপাবলিকান ন্যাশনাল কমিটির পক্ষ থেকে ডিপ রুট অ্যানালিটিক্স নামে এক মার্কেটিং সংস্থাকে প্রায় ৬১ শতাংশ মার্কিন নাগরিকের তথ্য সংগ্রহের বরাত দেওয়া হয়েছিল। টেকনোলজি নিউজ ওয়েবসাইট ‘গিজমোডো’ জানিয়েছে, আর তা করতে গিয়েই দুর্ঘটনাবশত সেই সব তথ্য ফাঁস হয়ে গিয়েছে।

আমেরিকার ইতিহাসে এমন কেলেঙ্কারির ঘটনা এই প্রথম। মার্কিন নাগরিকদের ব্যক্তিগত তথ্যের পাশাপাশি তাঁদের ধর্ম, জাত, রাজনৈতিক প্রবণতা সবই প্রকাশ্যে এসেছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, বন্দুক ব্যবহারের উপর নিয়ন্ত্রণ, গর্ভপাতের অধিকারের, স্টেম সেল নিয়ে গবেষণার মতো বিতর্কিত বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের কী মতামত ছিল, তাও ফাঁস হয়ে গিয়েছে। যদিও যুদ্ধকালীন তৎপরতায় সমস্ত পরিস্থিতি ঠিক করার চেষ্টা হচ্ছে। ফাঁস হয়ে যাওয়া তথ্য দিয়ে যাতে কেউ কোনও ভুল কাজ করতে না পারে তা ঠেকানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।