ওয়াশিংটন: আমেরিকার চোখে বিশ্বের অগ্রণী টেলিকম অপারেটর হিসেবে দেখা হচ্ছে রিলায়েন্স জিওকে। বুধবার মার্কিন স্বরাষ্ট্র সচিব পম্পেও সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়েছেন, চিনের গোয়েন্দা বিভাগের মদদপুষ্ট হুয়াওয়েইকে টেক্কা দিতে পারে রিলায়েন্স জিওর মতো পরিচ্ছন্ন টেলিকম সংস্থাই। এবার আমেরিকা সক্রিয় হয়েছে নেক্সট জেনারেশন ৫জি পরিষেবায় চিনা সংস্থা হুয়াওয়েই একছত্র আধিপত্য কমাতে।

কারণ প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সন্দেহ এই সংস্থাটির সঙ্গে চিনের গোয়েন্দা বিভাগের সম্পর্ক নিবিড়।‌ আর তাই এই সংস্থাটিকে নিষিদ্ধ করার জন্য বিভিন্ন দেশ নেতাদের কাছে আবেদন রেখেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করার কথাও বলেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

মার্কিন বিদেশ সচিব পম্পেও জানিয়েছেন, বিশ্বে চিনা চরবৃত্তির বিরুদ্ধে সচেতনতা বাড়াতে এই সংস্থাটির বিরুদ্ধে জনমত গড়ে তোলার চেষ্টা করা হচ্ছে। তারই ফলস্বরূপ অধিকাংশ দেশ তাদের ৫জি নেটওয়ার্কের কাজে বিশ্বাসী ভেন্ডর ছাড়া কাউকে সুযোগ দিতে রাজি হচ্ছে না।

বুধবারে মার্কিন স্বরাষ্ট্র দফতরের সন্ত্রাসবাদ সম্পর্কিত বার্ষিক রিপোর্ট পেশ করার সময় পম্পেও জানিয়েছেন, কানাডা ব্রিটেন ও ফ্রান্সের সংস্থাগুলির পাশাপাশি ভারতের রিলায়েন্স জিও চিনা সংস্থা হুয়াওয়ের সঙ্গে কোনরকম সম্পর্ক রাখেনি। যা যথেষ্ট ভালো বলে উল্লেখ করেছেন মার্কিন বিদেশ সচিব। প্রসঙ্গত গত ফেব্রুয়ারি মাসে ভারত সফরে আসারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

তাঁর ভারত সফরে দেশের শিল্পপতিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে ছিলেন তিনি। সেই শিল্পপতিদের মিটিংয়ে ছিলেন রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের চেয়ারম্যান মুকেশ আম্বানি‌। তিনি সেই সময় মিস্টার প্রেসিডেন্টকে জানিয়েছিলেন, তাদের সংস্থা জিও একমাত্র টেলিকম নেটওয়ার্ক যাতে চিনের কোন উপস্থিতি নেই।

অর্থাৎ সেই নীতি মেনে ৫জি পরিষেবার ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ স্বদেশি পথে জিও এগোচ্ছে। যা শুনে খুশিই হয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সম্প্রতি কেন্দ্রীয় যোগাযোগ মন্ত্রকের কাছে এর পরিষেবার পরীক্ষামূলক প্রয়োগের জন্য আবেদন জানানো হয়েছে।

এই জিও তে আবার গত এপ্রিলে জুকেরবার্গের ফেসবুক বড় অংকের অর্থ বিনিয়োগ করতে দেখা গিয়েছে। শুধু তাই নয়, গত কয়েকমাসে একাধিক বিদেশি বিনিয়োগ এসেছে রিলায়েন্স জিও’তে। লকডাউনের মধ্যেই এই বিনিয়োগ এসেছে। যা যথেষ্ট ভারতের অর্থনীতির ক্ষেত্রে ভালো দিক বলেই জানাচ্ছেন অর্থনীতির কারবারিরা।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও