ওয়াশিংটন: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র শুক্রবার জানিয়েছে, চিনের ৩৩টি সংস্থাকে অর্থনৈতিকভাবে কালো তালিকাভুক্ত করল আমেরিকা কারণ ওই সংস্থাগুলি বেজিং কে সহায়তা করছিল সংখ্যালঘু উইঘুর জনগণের উপর গোয়েন্দাগিরি করতে অথবা চিনা সেনাকে গণ ধ্বংসাত্মক কাজে।

ইউ এস বাণিজ্য দফতরের উদ্যোগে ট্রাম্প প্রশাসন চিহ্নিত করেছে সেইসব সংস্থাকে যাদের পণ্য চিনা সেনা বাহিনীর কার্যকলাপকে সহায়তা করে‌ এবং বেজিং কে শাস্তি দেবে তাদের সংখ্যালঘু মুসলিমদের প্রতি ব্যবহারের জন্য। এই সিদ্ধান্ত এল যখন বেজিংয়ে শাসক কমিউনিস্ট পার্টি শুক্রবার হংকংয়ে জাতীয় নিরাপত্তা আইন প্রয়োগের বিস্তারিত পরিকল্পনার কথা উন্মোচন করল।

সাতটি সংস্থা এবং দুটি প্রতিষ্ঠান তালিকাভুক্ত করা হয়েছে, যারা মানবাধিকার লংঘন করা অবৈধ কাজের সহযোগী এবং উইঘুরের বিরুদ্ধে প্রযুক্তিগত নজরদারি, চিনের প্রচার, জোর করে শ্রমিকদের আটক, দমন পীড়ন কাজে সহায়তা করছে। এছাড়া দু- ডজন সংস্থা সরকারি প্রতিষ্ঠান এবং বাণিজ্যিক সংগঠনকে যুক্ত করা হয়েছে, যাদের পণ্য চিনা সেনাবাহিনী সংগ্রহ করে বলে বিবৃতিতে বাণিজ্য দফতর জানিয়েছে।

ওইসব কালো তালিকাভুক্ত সংস্থাগুলির নজর রয়েছে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স এবং ফেসিয়াল রিকগনিশনের বাজারছ যা ইউএস চিপ কোম্পানিগুলি যেমন এনভিডিয়া কর্পোরেশন এবং ইন্টেল কর্পোরেশন রীতিমতো লগ্নি করছে।

এইসব সংস্থাগুলির মধ্যে রয়েছে চিনের বিখ্যাত নেটপোজা যে সংস্থাটি পরিচিত ফেসিয়াল রিকগনিশন কাজের জন্য এবং কাজে লাগানো হচ্ছে মুসলিমদের ওপর নজরদারি করার জন্য। এদিকে বাণিজ্য দফতর জানিয়েছে, আরও সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানকে এই তালিকায় ‌ যুক্ত করা হচ্ছে। যাদের মার্কিনী পণ্য অথবা পরিষেবা কেনার উপর নিয়ন্ত্রণ করা যাবে।