প্রতীকী ছবি

লখনউ: ভুয়ো পাসপোর্ট বানিয়ে বাংলাদেশি নাগরিকদের ভারতে থাকার চক্র ভেস্তে দিয়েছে উত্তর পুলিশের এটিএস (জঙ্গি দমন শাখা)৷ গ্রেফতার করা হয়েছে এই  চক্রের পাণ্ডা এক বাংলাদেশি নাগরিককে৷

ধৃতের নাম নজরুল আলি ওরফে হজরত আলি৷ সে বাংলাদেশের বরিশালের বাসিন্দা৷ সেখানে তার নাম জাহির খান৷   দীর্ঘদিন ধরে সে গাজিয়াবাদের মুরাদনগরে অবৈধভাবে বসবাস করছিল৷ তার কাছে একাধিক পেন ড্রাইভ, সন্দেহজনক নথিপত্র মিলেছে৷ এছাড়া ভারতীয় পরিচয়পত্র সহ আধার কার্ড, একাধিক ব্যাংকের চেকবুক উদ্ধার করা হয়েছে৷

আরও পড়ুন- জিগ্নেশ মেভানির উসকানিতেই হিংসা ছড়িয়েছে মহারাষ্ট্রে

বাংলাদেশিদের জন্য নকল ভারতীয় পাসপোর্ট তৈরির চক্র রমরমিয়ে চলছে দেওবন্দের পাঠানপুরা মহল্লা ও খানকাহ এলাকায়৷ এমন তথ্য পেয়েই অভিযান চালায় উত্তরপ্রদেশ পুলিশের এটিএস ও সাহারানপুর  পুলিশ৷ এই যৌথ অভিযানে দেওবন্দ থেকে ধরা পড়েছে দুই ব্যক্তি৷  উদ্ধার করা হয়েছে জাল পাসপোর্ট চক্রের কম্পিউটার, ল্যাপটপ, পেন ড্রাইভ ও নকল তথ্য ইত্যাদি৷  দেওবন্দের পাঠানপুরার বাসিন্দা এহসান আহমেদ ও ওয়াসিম আহমেদ এই চক্র চালাত৷

পুলিশের কাছে খবর ছিল, জাহির খান নামে ইস্যু করা ভারতীয় পাসপোর্ট ভুয়ো৷ সেই সূত্রে তদন্ত চালাতে গিয়েই বড়সড় ভুয়ো পাসপোর্ট চক্রের হদিস মিলল৷ এই চক্র অবৈধভাবে ভারতে থাকা বাংলাদেশিদের জন্য ভারতীয় পাসপোর্ট ও পরিচয়পত্র তৈরি করত৷

আরও পড়ুন: জাল নথি দেখিয়ে পাসপোর্ট তৈরি করতে গিয়ে ধৃত বাংলাদেশি

ধৃতদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে পুলিশ জানতে পেরেছে তাদের সঙ্গে সৌদি আরবের যোগাযোগ ঘনিষ্ঠ৷ সেই দেশে একাধিক লেনদেন করা হয়েচে৷ জেরায় ধৃতেরা কবুল করেছে,  তারা বাংলাদেশিদের জন্য নকল ভারতীয় পাসপোর্ট তৈরি করত৷

উত্তর প্রদেশের দেওবন্দ এলাকায় এর আগেও অবৈধ বাংলাদেশিদের সন্ধান মিলেছে৷ গত বছর অগস্ট ও সেপ্টেম্বর মাসে দেওবন্দ, লখনউ, মুজাফ্ফরনগর থেকেই ধরা পড়ে বাংলাদেশি জঙ্গিরা৷  তখনই পুলিশের নজরে আসে ভুয়ো পাসপোর্ট বানানোর চক্র৷ যদিও এই চক্রের সঙ্গে জড়িত এক বাংলাদেশি নাগরিক ফৈজাত পলাতক৷ সে জঙ্গি কার্যকলাপে জড়িত৷

আরও পড়ুন: ভয়ানক খবর! ১১ হাজার ব্ল্যাংক পাসপোর্ট চলে গেছে আইএস জঙ্গিদের হাতে

সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গে ধরা পড়ে বাংলাদেশি জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লা বাংলা টিমের (এবিটি) কয়েকজন৷ তারা উত্তরপ্রদেশের দেওবন্দে যাতায়াত করত৷ এসটিএফ জানিয়েছে, দেওবন্দের ভুয়ো পাসপোর্ট চক্রের সঙ্গে এবিটি জঙ্গি সংগঠনের যোগ আছে৷

আনসারুল্লা বাংলা টিম বাংলাদেশে নিষিদ্ধ৷  সেদেশে সংগঠনটি আনসার আল ইসলাম নামে পরিচিত৷ একাধিক মুক্তমনা ও বুদ্ধিজীবী খুনে জড়িত এই সংগঠন৷ এবিটি জঙ্গিদের বড়সড় চক্র পশ্চিমবঙ্গে ভেঙে দেওয়া হয়েছে৷ ধরা পড়েছে তাদের অস্ত্র সরবরাহকারী ও তিন জঙ্গি৷ বাংলাদেশ থেকে ভারতে অনুপ্রবেশ করিয়ে দেওয়ার এক দালালও ধারা পড়েছে৷