নয়াদিল্লি: সরকার জানিয়ে দিয়েছে বাতিল ভুয়ো কোম্পানি থেকে টাকা সরালে ডিরেক্টরদের ১০ বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে৷
তাছাড়া এই সব ভুয়ো ‘শেল’ কোম্পানির ডিরেক্টররা তিন বা তার বেশি সময় ধরে কোনও রিটার্ন ফাইল না করলে তারা অন্য কোন সংস্থা কোনও পদের জন্য অযোগ্য বলে বিবেচিত হবেন৷

এক্ষেত্রে এই সব ভুয়ো সংস্থার সঙ্গে যুক্ত চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট, কস্ট অ্যাকাউন্টট্যান্ট এবং কোম্পানি সেক্রেটারিদের সরকার চিহ্নিত করা হয়েছে৷

কালো টাকা উদ্ধারের জন্য ধারাবাহিক প্রচেষ্টায় সরকার আরও বহু ভুয়ো কোম্পানি চিহ্নিতকরণের কাজ চালাচ্ছে এবং খুঁজে দেখার চেষ্টা চলছে এইগুলি থেকে প্রকৃত সুবিধাভোগী কারা৷

কোম্পানি বিষয়ক মন্ত্রী ইতিমধ্যেই ২.০৯ লক্ষ এমন কোম্পানিকে বাতিল করা হয়েছে এবং ব্যাংকগুলিকেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ওইসব সংস্থার অ্যাকাউন্টগুলি ফ্রিজ করে দিতে৷

সরকার জানিয়েছে যদি জনস্বার্থেও এই প্রতারণা ঘটে তখনও শাস্তি তিন বছরের কারাবাসের কম নয় এবং জরিমানা হবে যত টাকা তার তিনগুণ৷

ইতিমধ্যেই সংস্থার ডিরেক্টর অথবা স্বাক্ষর প্রদান করার দায়িত্ব থাকা ব্যক্তিদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে লেনদেন নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ