প্রয়াগরাজ: চার বছর বয়সী এক শিশু বেলুন চাওয়াতে তাঁকে খুন করেছে সৎ বাবা। মঙ্গলবার শিশুটির মায়ের তরফ থেকে এমনটাই জানা গিয়েছে।

পুলিশের পৌছতে যে সময়টুকু লেগেছিল তাঁর মধ্যে অভিযুক্তকে আহত অবস্থায় পাওয়া গিয়েছিল। যদিও তাঁর বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এমনটাই জানা গিয়েছে পুলিশ অফিসারের তরফে।

জানা গিয়েছে স্বামী ও তার স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হওয়াতে লোকটি তার সৎ মেয়েকে একটি ঘরে নিয়ে যায়। পুলিশকে অভিযোগ জানালে যখন ঘটনাস্থলে তারা পৌঁছায় লোকটিকে অজ্ঞান অবস্থায় পাওয়া যায় এবং শিশুটিকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়, ” ব্রিজেশ শ্রীবাস্তব জানান। অভিযুক্তকে একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

অভিযুক্ত ব্যক্তির বক্তব্য স্ত্রী। জানিয়েছেন “আমার স্বামী ও আমি ওষুধ কিনতে বের হয়েছিলাম তখন আমার মেয়েটি বেলুন চেয়েছিল। আমার স্বামী তাকে মারতে শুরু করে এবং আমি তাকে থামানোর চেষ্টা করলে তিনি আমাকে বাইক থেকে ধাক্কা দিয়ে মেয়েটিকে নিয়ে যায়,”

তিনি রাত সাড়ে দশটার দিকে ফিরে এসে নিজেকে একটি ঘরে আটকে রেখেছিলেন। সকালে তিনি পুলিশকে ফোন করাতে জানতে পারেন যে সে ওই শিশুটিকে হত্যা করেছে এবং নিজেও আহত হয়েছে।