নয়াদিল্লি: পশ্চিমবঙ্গে শাসনের ভার পদ্ম ফুলের হাতে দেওয়ার আবেদন করেছিলেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। যদিও পদ্ম নয় ঘাসফুলের প্রতি রায় দিয়েছে বঙ্গবাসী। মোট ১০ শতাংশ ভোট এবং ২৯৪টি আসনের তিনটি আসন নিয়েই বাংলায় বিজেপিকে চলতে হবে আগামী পাঁচ বছর। কিন্তু অসমের ক্ষত্রে চিত্রটা ভিন্ন। ১২৬ আসনের অসম বিধানসভায় ৮২টি নিয়ে প্রথমবারের জন্য ক্ষমতায় ফিরেছে ভারতীয় জনতা পার্টি। এবার দেশের সবথেকে বড় রাজ্য উত্তর প্রদেশের বিধানসভা দখল করাই বিজেপির প্রধান লক্ষ্য। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পছন্দের তালিকাতেও রয়েছে ওই রাজ্য।

৪০৪ আসনের উত্তর প্রদেশ বিধানসভা বর্তমানে সমাজবাদী পার্টির দখলে। ২০১২ সালে ২২৯টি আসন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন সমাজবাদী পার্টি প্রধান মুলায়ম সিং যাদবের পুত্র অখিলেশ যাদব। ওই রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন হতে আর একবছরও বাকি নেই। ইতোমধ্যেই গুটি সাজাতে শুরু করে দিয়েছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল। কর্মীদের নিয়ে সভাও করেছেন জেডিইউ প্রধান নীতীশ কুমার। কিন্তু, একটু অন্য নীতি নিয়ে চলতে চাইছে বিজেপি। উত্তর প্রদেশের একাধিক সাংসদকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভায় নিয়ে আসার পরিকল্পনা করেছে বিজেপি। নরেন্দ্র মোদীর ক্যাবিনেটেও স্থান পেতে পারেন উত্তর প্রদেশের একাধিক সাংসদ। তবে সেক্ষেত্রে পদ খোয়াতে হতে পারে একাধিক ক্যাবিনেট মন্ত্রীকে। জানা গিয়েছে, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জেপি নাড্ডা, পরিবেশমন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর এবং ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের প্রতিমন্ত্রী গিরিরাজ সিং মন্ত্রীত্ব হারাতে পারেন। এছাড়াও ভারতীয় জনতা পার্টির উচ্চপদে উত্তর প্রদেশ থেকে একাধিক ব্যক্তিকে নিয়ে আসা হতে পারে বলেও খবর পাওয়া গিয়েছে।

bjp
অসম জয়ের পর মোদী