লখনউ: গোরক্ষার নয়া হাতিয়ার৷ পথ দুর্ঘটনায় যাতে কোনও গরুর মৃত্যু না হয়, বা কোনও গরু আহত না হয়, তার জন্য পদক্ষেপ নিল উত্তরপ্রদেশ সরকার৷ গরুদের শিং ও গলায় পরানো হবে রেডিয়াম ব্যান্ড৷ সেই কাজ ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছে উত্তরপ্রদেশ প্রশাসন৷

কিন্তু রেডিয়াম ব্যান্ড কেন? এই প্রশ্নের উত্তরে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের এক আধিকারিক জানালেন রাতে গাড়ির আলোয় জ্বলজ্বল করবে এই রেডিয়াম ব্যান্ড৷ গাড়ির চালক সহজেই চিহ্নিত করতে পারবেন গরুটিকে৷ ফলে দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা অনেকটাই কমে যাবে৷

আরও পড়ুন : যোগীর রাজ্যে আইসিইউতে গণধর্ষিতা নাবালিকা

এই প্রসঙ্গে সংবাদসংস্থা এএনআইকে সিদ্ধার্থনগরের পুলিশ সুপার ধরমবীর সিং জানান, রাতের বেলায় পথচলতি গরু ও অন্যান্য পশুদের জন্য দুর্ঘটনার পরিমাণ বাড়ছে৷ গাড়ির ধাক্কায় মৃত্যু হচ্ছে পশুদের৷ সেই অহেতুক প্রাণহানি বন্ধ করতেই উত্তরপ্রদেশ পুলিশের এই উদ্যোগ৷ গরুদের শিংয়ে রেডিয়াম টেপ ও গলায় রেডিয়ামের ব্যান্ড লাগানোর কাজ শুরু করা হয়েছে৷

শীত পড়ার আগেই এই কাজ শেষ করতে চাইছে প্রশাসন৷ কারণ শীত পড়ে গেলে কুয়াশায় ঢেকে যায় গোটা রাজ্য৷ তখন দৃশ্যমানতা কমে যায়৷ ফলে গাড়ি চালকদের যেমন সমস্যা হয়, তেমনই দুর্ঘটনার সংখ্যাও বাড়ে৷ সেই প্রবণতা ঠেকাতেই রেডিয়াম ব্যান্ড পরানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷

আরও পড়ুন : বিদ্যুতের ‘স্বাভাবিক’ মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে রাস্তায় প্রদেশ কংগ্রেস

তবে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের গরুদের প্রাণ বাঁচানোর সক্রিয়তা দেখে প্রশান তুলেছেন অনেকে৷ তাঁদের দাবি দৃশ্যমানতা কমে যাওয়ায় শুধু গরুদের প্রাণহানিই হতে পারে? মানুষের নয়? যোগী আদিত্যনাথ সরকারের এই গোরক্ষার নয়া উপায়কে নিয়ে ইতিমধ্যেই সমালোচনা শুরু হয়েছে বিভিন্ন মহলে৷