লখনউ : বন্দুক ঠেকিয়ে ফিল্মি কায়দায় লুঠ চলল সোনার দোকানে৷ ঘটনা উত্তরপ্রদেশের মোরাদাবাদের কাঠগড় এলাকার৷ শনিবার রাতে এই লুঠতরাজ চলে৷

পুলিশ সূত্রে খবর, সোনার দোকানের মালিক গিরিশ দোকান বন্ধ করার পর নিজের বাড়ি ফিরছিলেন৷ তার সঙ্গে ছিল বেশ কিছু সোনার গয়না৷ বাইক আরোহী দুষ্কৃতীরা আগে থেকেই লক্ষ্য রেখেছিল গিরিশের ওপর৷ দোকান বন্ধ করে বের হয়ে কিছুদূর যাওয়ার পর তাঁর ওপর হামলা চলে৷

মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে প্রথমে সোনার গয়না চাওয়া হয়৷ গিরিশ দিতে অস্বীকার করেন৷ তারপর চলে হুমকি, প্রাণের মারার শাসানি৷ ভয়ে সোনার গয়নার ব্যাগ দিয়ে দেন গিরিশ৷ তারপরেই বাইকে করে ব্যাগ নিয়ে চম্পট দেয় দুই দুষ্কৃতী৷ খবর যায় মোরাদাবাদ পুলিশ স্টেশনে৷ সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ৷ মুখ ঢাকা থাকায়, কারোর মুখের বর্ণনা দিতে পারেননি গিরিশ৷ তবে তদন্ত শুরু হয়েছে৷

মোরাদাবাদের পুলিশ সুপার অঙ্কিত মিত্তল জানান সিসিটিভি পুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে৷ অপরাধীদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে৷ তবে এই ঘটনায় সাধারণ মানুষের মনে আতঙ্ক ছড়িয়েছে৷ এলাকাবাসীর প্রশ্ন মানুষের নিরাপত্তা ক্রমশ বিঘ্নিত হচ্ছে৷ পার পেয়ে যাচ্ছে অপরাধীরা৷ ফলে অপরাধপ্রবণতা বাড়ছে৷

পুলিশের বিরুদ্ধেও ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন এলাকাবাসী৷ পুলিশের নিষ্ক্রিয়তার জন্যই এই অপরাধপ্রবণতা বাড়ছে বলে মত তাঁদের৷ ইতিমধ্যেই অভিযোগ দায়ের হয়েছে পুলিশের কাছে৷ তদন্ত চলছে৷