নয়াদিল্লি: খুব শীঘ্রই সেক্ষেত্রে দু-একদিনের মধ্যেই ভারত দ্বিতীয় স্টিমুলাস প্যাকেজ ঘোষণা করতে চলেছে । যা প্রায় ১ লক্ষ কোটি টাকার (১৩ বিলিয়ন ডলার) এবং নজর দেবে ছোট মাঝারি বাণিজ্যিক সংস্থাকে সহায়তা করার জন্য। দুজন উচ্চস্তরের অফিসার সূত্রে এমন খবর বলে জানিয়েছে রয়টার্স। গত মাসে ভারত ১.৭ লক্ষ কোটি টাকার (২২.৬ বিলিয়ন ডলার) আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছিল।

যার মাধ্যমে দেশজুড়ে ২১ দিনের লক ডাউনের জেরে মুশকিলে পড়া গরিব প্রান্তিক মানুষকে নগদ এবং খাদ্য সুরক্ষার ব্যবস্থা করাটাই উদ্দেশ্য ছিল। এবার‌ দ্বিতীয় প্যাকেজে নজর থাকবে মূলত এম এস এম ই ক্ষেত্রের উপর বলে এমন এক উচ্চপদস্থ সরকারি অফিসার জানিয়েছেন যার কাছে এই পরিকল্পনার ব্যাপারে সরাসরি তথ্য রয়েছে। এছাড়া ওই অফিসার জানিয়েছেন বড় সংস্থার জন্য আলাদা প্যাকেজ পরে ঘোষণা হবে এই লকডাউনের প্রভাবে সেখানে কতটা ধাক্কা খেয়েছে তা খতিয়ে দেখার পরে।

সরকারি হিসেব অনুসারে,ভারতের ২.৯ ট্রিলিয়ন ডলারের অর্থনীতির ‌ এক-চতুর্থাংশ হল এই ছোট ব্যবসা এবং এর সঙ্গে যুক্ত রয়েছে ৫০০ মিলিয়ন শ্রমিক। বর্তমানে ভারতে ৫২৭৪ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন এবং দেশে ১৪৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।

১৪ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণার ফলে ‌ এদেশে করোনা প্রকোপ কমবে বলে মনে করা হয়েছে। ভারতের সংবাদমাধ্যমের মধ্যে জল্পনা চলছে সরকার শীঘ্রই আরও রিলিফের কথা‌ ঘোষণা করবে এই অর্থনৈতিক সংকটে সহায়তা করার উদ্দেশ্যে। এই নতুন প্যাকেজের লক্ষ্য থাকবে এমএসএমই ক্ষেত্রে যাতে ব্যাংক ঋণের সীমা বাড়ানো যায় যা তাদের কার্যকরী মূলধনের ‌ জন্য কাজে লাগবে। পাশাপাশি কিছু কর ছাড়ের কথা বলা হতে পারে বলে সূত্রের খবর।