ঢাকা: আর কোথাও না। একেবারে খোদ রাজধানী শহরে অবস্থা যে কেমন তা আরও একবার বেয়াব্রু হয়ে পড়ল বাংলাদেশবাসীর সামনে। ঢাকা শহরে ঘটল অপহরণ করে ধর্ষণের ঘটনা।

জানা গিয়েছে, রবিবার বেলা সাড়ে পাঁচটা নাগাদ বান্ধবীর বাড়িতে পড়তে যাওয়ার জন্য ইউনিভার্সিটির বাসে ওঠেন তিনি। বাসে সব ঠিক ঠাক থাকলেও গন্ডগোলের সূত্রপাত বাস থেকে নামার পরেই।

যুবতীর অভিযোগ, সে বাস থেকে নামতেই কয়েকজন পেছন থেকে তাঁর মুখ চেপে ধরে। এরপরেই অজ্ঞান হয়ে যায় সে। যুবতির দাবি, এরপর ওই অজ্ঞাত পরিচয়ের যুবকরা ধর্ষণ করে তাঁকে। এরপর রাত ১০ টা নাগাদ আক্রান্ত ছাত্রী পৌঁছায় তাঁর বান্ধবীর বাড়ি।

বান্ধবীকে সব ঘটনার কথা খুলে বলে ওই নির্যাতিতা তরুণী। এরপরেই অভিযোগ দায়ের করা হয় থানায়। সহপাঠীরা প্রথমে তাঁকে নিয়ে আসে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে। পরে হাসপাতালের ওয়ান–স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয় নির্যাতিতাকে।

আরও পড়ুন- অনলাইনে প্রতারণার শিকার রাষ্ট্রপতি পুরস্কার প্রাপ্ত শিল্পী, খোয়ালেন ৬৪ হাজার টাকা

এই ঘটনায় ফের একবার রাজধানী ঢাকা শহরে মেয়েদের নিরাপত্তার বেহাল চিত্র ধরা পড়েছে। আর এই নিয়ে ফুঁসে উঠেছে কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। সোমবার দুপুর ১২ টা নাগাদ এই ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিলে হাটবে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল।

ঢাকা মেডিকেলে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ছাত্রদল নেতারা বলেন, ‘এমনতিইে আমরা ক্যাম্পাসে বাধামুক্তভাবে প্রবেশ করতে পারি না। কিন্তু আমাদের সহপাঠি বোনের ওপর যে অত্যাচার হয়েছে, সেই অপরাধীর শাস্তির দাবিতে আমরা মাঠে নামবো। দুপুর বারোটায় মধুর ক্যান্টিন থেকে ছাত্রদল প্রতিবাদ মিছিল বের করবে।’