ম্যাঞ্চেস্টার: দুই দলের ডাগ আউটে দুই স্পেশাল কোচের মস্তিষ্কের লড়াই হট কেকের মত বিকোচ্ছে ম্যাঞ্চেস্টার ডার্বির আগে। আর কয়েক ঘন্টার অপেক্ষা, তারপরই সাজঘরে কোচেদের পেপটক নিয়ে মাঠ মাতাতে নামবেন দুই দলের ফুটবলাররা। তবে কথায় আছে প্রত্যেক সফল মানুষের পিছনে থাকে একজন নারীর হাত। তেমনই দুই দলের এমন অনেক ফুটবলার আছেন, যাদের সাফল্যের পিছনেও আছে তাঁদের প্রিয়জনের অবদান। তবে এই সকল ফুটবলারের স্ত্রী কিংবা গার্লফ্রেন্ডদের কেউ কেউ আবার সমানভাবে জনপ্রিয় মাঠের বাইরেও। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁদের গুণগ্রাহীর সংখ্যাও নেহাত কম নয়। নেটিজেনদের ভাষায় তাঁরা ‘ম্যাঞ্চেস্টার ডার্বি বেবস্’।

হাইভোল্টেজ ম্যাঞ্চেস্টার ডার্বির আগে একবার দেখে নেওয়া যাক সেই সকল রমণীদের:

এদুর্নে গার্সিয়া: ২০১১ থেকে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের তিন কাঠির নিচে ভরসার স্থলপাত্র ডেভিড দি গিয়া। ২০১০ থেকে তিনি ডেট করছেন পপস্টার এদুর্নে গার্সিয়ার সঙ্গে। সোশ্যাল মিডিয়ায় স্পেনের জনপ্রিয় পপস্টার গার্সিয়ার ফলোয়ার সংখ্যাও নেহাত কম নয়। প্রায় ৯ লক্ষ অনুরাগী এদুর্নেকে ফলো করেন জনপ্রিয় সোশ্যাল সাইট ইনস্টাগ্রামে।

স্যাম কুকি: ম্যান ইউয়ের বছর আঠাশের সেন্টার ব্যাক ক্রিস স্মলিং বরাবরই পারফর্ম্যান্সের নিরীখে উঠে আসেন শিরোনামে। গতবছর জুনে জনপ্রিয় মডেল স্যাম কুকির সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছেন স্মলিং। বছর বত্রিশের স্যাম সারা বিশ্বেই জনপ্রিয় তাঁর শরীরী আবেদনের কারণে।

মাজা নিলসন: তালিকায় পরের পরের নামটি ম্যান ইউয়ের সুইডিশ ডিফেন্ডার ভিক্টর লিন্ডেলফের স্ত্রী মাজা নিলসনের। জনপ্রিয়তার নিরীখে তেমন শীর্ষে না থাকলেও গত মরশুমে স্বামীর ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে আসার কারণে আবেগতাড়িত হয়ে পড়েছিলেন বছর তেইশের মাজা। স্বামীর কেরিয়ারের প্রতি যে তিনি যথেষ্ট ওয়াকিবহাল, ঘটনা তারই প্রমাণ।

মিশেল দি ল্যাক্রোয়িক্স: লিগামেন্টে চোটের কারণে ডার্বিতে মাঠে নেই তিনি। তবে মাঝমাঠে তাঁর দৌড় ম্যাঞ্চেস্টার সিটির সম্পদ। এহেন কেভিন দে ব্রুইনা গত বছর জুনেই চার হাত এক করেছেন বান্ধবী মিশেন দি ল্যাক্রোয়িক্সের সঙ্গে। আইফেল টাওয়ারের নীচে দাঁড়িয়ে ব্রুইনা মিশেলকে সেই প্রস্তাব দিয়েছিলেন বলে ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে খবর।

অ্যানি কিলনার: ৪৫ মিলিয়ন ইউরোয় গত মরশুমে সিটিতে যোগ দিয়েছিলেন কাইল ওয়াকার। এই মুহূর্তে বিশ্বের প্রথম সারির ডিফেন্ডারদের মধ্যে একজন তিনি। তবে জনপ্রিয়তার নিরীখে কম যান না তাঁর গার্লফ্রেন্ড অ্যানি কিলনার। ২০১১ থেকেই জনপ্রিয় এই মডেলের সঙ্গে সম্পর্কে রয়েছেন কাইল ওয়াকার।

আলিসিয়া ভেরান্দো: গত মরশুমে মোনাকো থেকে ম্যাঞ্চেস্টার সিটিতে যোগ দিয়েছিলেন পর্তুগিজ মিডফিল্ডার বার্নার্দো সিলভা। নতুন ক্লাবে দুরন্ত পারফর্ম্যান্সে নজর কেড়েছেন অনুরাগীদের। তবে কম যান না তাঁর বান্ধবী আলিসিয়া ভেরান্দো। পার্টটাইম মডেল আলিসিয়ার রয়েছে ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ডিগ্রী। বর্তমানে সিলভার প্রাক্তন ক্লাব মোনাকোর মার্কেটিংয়ের দিকটি দেখভালের দায়িত্বে রয়েছেন আলিসিয়া।