নয়াদিল্লি : করোনা আক্রান্ত কেন্দ্রীয় ক্রীড়া মন্ত্রী কিরেন রিজিজু। শনিবার ট্যুইট করে নিজেই সেই তথ্য দিয়েছেন মন্ত্রী। তিনি জানিয়েছেন শনিবার করোনা টেস্টের রিপোর্ট হাতে পান তিনি। তাঁর সংস্পর্শে আসা সব ব্যক্তিদের করোনা পরীক্ষা করিয়ে নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে সেল্ফ কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন তিনি। চলছে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা। এই কঠিন পরিস্থিতিতে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন রিজিজু। তাঁর শারীরিক সুস্থতা কামনা করে বার্তা দিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি ও মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের সাম্প্রতিকতম রিপোর্ট অনুযায়ী আক্রান্তের নিরীখে ভারত আবার নতুন রেকর্ড তৈরী করল। গত ২৪ ঘন্টায় করোনা ভাইরাস থাবা বসিয়েছে ২ লক্ষ ৩৪ হাজার ৬৯২ জনের শরীরে। এখনও পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ কোটি ৪৫ লক্ষ ২৬ হাজার ৬০৯ জন। কোরোনার বলি হয়েছে ১ হাজার ৩৪১ জন। যা শুক্রবারের তুলনায় বেশ খানিকটা বেশি।এখনও পর্যন্ত ১ লক্ষ ৭৫ হাজার ৬৫০জন মানুষ করোনার বলি হয়েছে।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ১ লক্ষ ২৩ হাজার ৩৫৪ জন। এইমুহূর্তে দেশে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬ লক্ষ ৭৯ হাজার ৭৪০জন। এখনও পর্যন্ত কোভিড টিকা পেয়েছেন দেশের ১১ কোটি ৯৯ লক্ষ ৩৭ হাজার ৬৪১ জনকে। তবে সংক্রমণ তাতেও রোখা যাচ্ছে না।

এদিকে, জমায়েত এড়াতে ফের কয়েকটি কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে কেন্দ্র। ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল থেকে জাদুঘর, তাজমহল – ASI’এর অধীনে থাকা সব কটি ঐতিহাসিক স্থানের গেট দর্শকদের জন্য বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ভয়াবহ পরিস্থিতিকে সামাল দিতে কয়েকটি রাজ্য সরকার আংশিক বিধিনিষেধ, সপ্তাহান্তে লকডাউন এবং নাইট কারফিউ-এর মত পদক্ষেপ নিয়েছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.