ফাইল ছবি৷

নয়াদিল্লি:  বাড়ছে সংক্রমণ। এরই মধ্যে করোনা আক্রান্ত হলেন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি। গত কয়েকদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন কেন্দ্রীয় এই মন্ত্রী। সম্প্রতি তাঁর করোনা টেস্ট করানো হয়। এরপরেই কেন্দ্রীয়মন্ত্রীর রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে বলে খবর।

এরপরেই তিনি হোম আইসোলেশনে নিজেকে রেখেছেন বলে জানা যাচ্ছে অসমর্থিত সূত্রে। পাশাপাশি গত কয়েকদিনে তাঁর কাছাকাছে যারা এসেছেন তাঁদের সবাইকে আপাতত আইসোলেশনে থাকতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি প্রয়োজনে করোনা পরীক্ষা করার কথাও বলা হয়েছে।

গত কয়েকমাসে একাধিক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্ত হয়েছেন খোদ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তালিকায় রয়েছেন আরও অনেকে। শুধু আক্রান্ত হওয়া নয়, করোনাতে মৃত্যু পর্যন্ত হয়েছে। এই অবস্থায় আরও এক কেন্দ্রীয়মন্ত্রীর আক্রান্ত হওয়ার খবরে বাড়ছে চিন্তা।

যদিও ইতিমধ্যে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানির দ্রুত আরোগ্য কামনায় টুইট করেছেন বিজেপির বহু কেন্দ্রীয় নেতা এবং মন্ত্রী।

অন্যদিকে, দেশে আবার কিছুটা বেড়েছে করোনা সংক্রমণ। শেষ ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত হলেন ৪৩ হাজার ৮৯৩ জন। এই সময়ের মধ্যে মৃত্যু হল ৫০৮ জনের। নতুন সংক্রমণ ও মৃত্যুর জেরে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৭০ লক্ষ ৯০ হাজার ৩২২ জন। করোনার জোরে দেশে মৃত্যু সংখ্যা রয়েছে ১ লক্ষ ২০ হাজার ১০ জনে।

বর্তমানে দেশে অ্যাক্টিভ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা রয়েছে ৬ লক্ষ ১০ হাজার ৮০৩। যা কিনা গতকালের তুলনায় ১৫ হাজার ৫৪ কম। এই পরিসংখ্যানকে যথেষ্ট আশাজনক মনে করা হচ্ছে।

দেশজুড়ে করোনা হামলার পরেও সুস্থ হয়ে উঠেছেন এমন মানুষের সংখ্যা ৭২ লক্ষ ৫৯ হাজার ৫০৯। শেষ ২৪ ঘন্টায় নতুন করে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫৮ হাজার ৪৩৯ জন।

দেশে এই মুহুর্তে করোনা পরিস্থিতি বিবেচনা করে কেন্দ্রের তরফে জানিয়ে দেওয়া হল নতুন কোনও ছাড় দেওয়া হবে না। অর্থাৎ আনলক ৬-এ নতুন কিছু খোলার সম্ভাবনা নেই। এর আগে সেপ্টেম্বরে এই নির্দেশিকা ঘোষণা করা হয়েছিল, সেটাই বহাল থাকবে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত।

দেশে এবং বিদেশের একাধিক সংবাদমাধ্যমে টানা দু'দশক ধরে কাজ করেছেন । বাংলাদেশ থেকে মুখোমুখি নবনীতা চৌধুরী I