নয়াদিল্লি: এবার হোম আইসোলেশনে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ। অমিত শাহ করোনা আক্রান্ত হওয়ার পরই হোম আইসোলেশনে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ। শনিবার সন্ধেয় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন তিনি। পরের দিন রবিবারই করোনা আক্রান্ত হন অমিত শাহ।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নিজে করোনা আক্রান্ত হওয়ার পরই তিনি নিজে বাকিদের সতর্ক করে দেন। গত কয়েকদিনে তাঁর সংস্পর্শে যাঁরা এসেছেন তাঁদেরও তিনি কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেন।

টুইটে শাহ জানান, তাঁর শারীরিক পরিস্থিতি স্থিতিশীল, তবু চিকিৎসকদের পরামর্শে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন তিনি। একইসঙ্গে অমিত শাহ সতর্ক করে বলেন, ‘গত কয়েকদিনে যাঁরা আমার সংস্পর্শে এসেছেন তাঁরা দ্রুত নিজেদের আইসোলেট করুন।’

এরপরই আইসোলেশনে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ। আপাতত বাড়ি থেকেই নিজের মন্ত্রকের কাজ পরিচালনা করবেন তিনি। অমিত শাহের সংস্পর্শে আসায় আগেই সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে নিজে থেকেই আইসোলেশনে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন আর এক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়।

করোনা আক্রান্ত কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ৷ সম্প্রতি তার সংস্পর্শে এসেছিলেন কেন্দ্রীয় বন ও পরিবেশ প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়৷ ফলে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকছেন বাবুল৷

বাবুল সুপ্রিয় জানান, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর পেয়েই তিনি হোম কোয়ারেন্টাইনে চলে গিয়েছেন। বাবুল আরও জানান, ‘কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন তার চিকিৎ‍সকের সঙ্গে কথা হয়েছে তাঁর। তাঁরাই তিন দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলেছেন বাবুলকে।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও