নয়াদিল্লি: ৬ এপ্রিল ভারতীয় জনতা পার্টির প্রতিষ্ঠা দিবস। করোনা ভাইরাসের থাবায় সোমবার বিজেপির ৪০তম প্রতিষ্ঠা দিবস উদযাপন রঙিন না হলেও আদর্শে নেই কোনও খামতি। এদিন সকালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পাশাপাশি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেছেন দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

এদিন সকালে তিনি তাঁর বাসভবনে শ্যামাপ্রসাদ মুখারজি এবং দীনদয়াল উপাধ্যায়কে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেছেন। ৪০ বছর আগে ঠিক এদিনেই জন্ম নিয়েছিল ভারতীয় জনতা পার্টি। দলের কর্মীদের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন নরেন্দ্র মোদী। ১৯৮০ সালের এমন দিনেই বাজপেয়ী-আডবাণীদের হাত ধরে প্রতিষ্ঠা হয়েছিল ভারতীয় জনতা পার্টির।

সোমবার সকালে টুইট বার্তায় মোদী বলেছেন, দলের নীতি মেনে কর্মীরা সাধারণ মানুষের জীবনকে ইতিবাচক করে তুলতে কঠোর পরিশ্রম করছে। একইসঙ্গে সমাজসেবা করছে।

মোদী বলেন, “গত কয়েকদশক ধরে যারা কঠোর পরিশ্রম করে দল গড়েছেন, তাদের সকলকে আমার শ্রদ্ধা। তাঁদের কারণেই বিজেপি আজ কোটি কোটি ভারতীয়ের সেবা করার সুযোগ পেয়েছে।”

একটি টুইটে কর্মীদের উদ্দেশ্যে দেশকে করোনা মুক্ত করার ডাকও দিয়েছেন মোদী। তিনি বলেন, ‘আমরা এমন একটা সময় ৪০ তম জন্মদিন পালন করছি, যখন দেশ করোনার বিরুদ্ধে আক্রান্ত।’ কর্মীদের উদ্দেশ্যে তাঁর বার্তা , জেপি নাড্ডার সমস্ত নির্দেশ মেনে চলতে হবে। মোদী কর্মীদের বলেছন, সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিং সম্পর্কে মানুষকে বোঝান।

অন্যদিকে করোনায় কাঁপছে ভারত। সোমবার দেশে মৃতের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়ে গেল। শেষ ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু হয়েছে ৩২ জনের। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তথ্য অনুযায়ী দেশে আক্রান্তের সংখ্যাও ইতিমধ্যে ৪০০০ পার করে ফেলেছে, পরিসংখ্যান অনুযায়ী মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৪,০৬৭ জন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ডাকে রবিবার রাতে ৯ মিনিটের জন্য মোমবাতি, প্রদীপ জ্বালিয়ে একতার বার্তা দিয়েছিল দেশ। তারপরের দিন সকালেই আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গিয়েছে ৪০০০। মৃত ১০৯ জন।

প্রসঙ্গত, বিজেপি সভাপতির বার্তাও তাৎপর্যপূর্ণ। তিনি জানিয়েছেন, দলের কর্মীরা যেন প্রত্যেকে আজ তাঁদের বুথ এলাকায় চল্লিশ বাড়িতে যান। তাঁর পর, পুলিশ, সাফাইকর্মী, ডাক্তার ও নার্স, ব্যাঙ্ক ও ডাক কর্মী এবং সরকারি কর্মচারীদের উদ্দেশে পাঁচটি পৃথক ধন্যবাদ-চিঠিতে সই সংগ্রহ করেন।