নয়াদিল্লি:  ইউনাইটেড নেশন প্রকাশ করেছে ওয়ার্ল্ড হ্যাপিনেস রিপোর্ট। যেখানে ১৫৬ টি দেশের মধ্যে ভারতের র‍্যাঙ্ক রয়েছে ১৪৪ নম্বরে। যা কিনা আশাজনক নয়। অন্যদিকে ৬৬ র‍্যাঙ্কে দাঁড়িয়ে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে পাকিস্তান। ২০১৮-২০১৯ সালের ভিত্তিতে তৈরি করা হয়েছে এই হ্যাপিনেস রিপোর্ট।

১৪৪ নম্বরে ভারতের পয়েন্ট রয়েছে ৩.৫৭৩। অন্যদিকে ৬৬ র‍্যাঙ্কে থাকা পাকিস্তানের স্কোর ৫.৬৯৩। এই তালিকায় ৭.৮০৯ পয়েন্ট নিয়ে সবচেয়ে ওপরে রয়েছে ফিনল্যান্ড। তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে ডেনমার্ক। তিন ধাপ এগিয়ে তৃতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে সুইজারল্যান্ড। পরের সাতটি দেশ হচ্ছে যথাক্রমে আইসল্যান্ড, নরওয়ে, নেদারল্যান্ডস, সুইডেন, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রিয়া ও লুপেমবার্গ। বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী দেশ যুক্তরাষ্ট্র আছে তালিকার ১৮তম অবস্থানে।

কানাডা, অস্ট্রেলিয়া রয়েছে যথাক্রমে ১১, ১২ নম্বরে। নেপাল ৯২, চীন ৯৪ নপম্বরে অবস্থান করছে। প্রতিবেশী বাংলাদেশ এই সূচকে বেশ কিছুটা উন্নতি করেছে। সুখী দেশের তালিকায় এবার ১৮ ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ। চলতি বছরের ১৫৬ দেশের তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ১০৭তম।

সামাজিক সহযোগিতা, গড় আয়, সমাজে দুর্নীতির হার, সামাজিক স্বাধীনতা, উদারতা এসবের ওপর ভিত্তি করেই প্রতি বছর এই তালিকা তৈরি করে ইউএন। এবার নিয়ে অষ্টম বার এই তালিকা প্রকাশ করেছে ইউএন।

উল্লেখ্য, যেহেতু ২০১৮ ও ২০১৯ সালের ওপর ভিত্তি করে এই তালিকা প্রকাশ পেয়েছে, তাই করোনা ভাইরাস এই লিস্টে কোনও প্রভাব ফেলেনি। যদি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব চলাকালীন এই সার্ভে বা সমীক্ষা চালানো হত, তাহলে হয়তো তালিকা অন্যরকম হত।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা