বেঙ্গালুরু: চলতি আইপিএলে আম্পায়ারিংয়ের মান বারবারই তুলে দিয়ে গিয়েছে একরাশ প্রশ্নচিহ্ন। আর নিম্নমানের আম্পায়ারিংয়ের ঘটনায় একাধিকবার তিক্ত হয়েছে ক্রিকেটার-আম্পায়ার সম্পর্ক। যার নবতম সংযোজন বেঙ্গালুরু ম্যাচে বিতর্কিত নো-বলের সিদ্ধান্তকে কেন্দ্র করে আম্পায়ার নাইজেল লং ও কোহলির ঝামেলায় জড়িয়ে পড়ার ঘটনা। তবে সেই ঘটনার জেরে পরবর্তীতে যে কান্ড ঘটালেন ব্রিটিশ আম্পায়ার, তা জন্ম দিয়ে গেল আরও বড়সড় বিতর্কের।

মাঠে কোহলির সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে ক্ষোভে চিন্নাস্বামীর আম্পায়ার রুমের দরজা ভাঙলেন আইসিসি’র এলিট প্যানেলের এই আম্পায়ার। শনিবার আরসিবি বনাম সানরাইজার্স ম্যাচে সানরাইজার্স ইনিংসের অন্তিম বলে বিতর্কের সূত্রপাত। প্রাথমিকভাবে উমেশ যাদবের ডেলিভারিটি লং নো-বল ডাকলেও টেলিভিশন রিপ্লেতে দেখা যায় ডেলিভারিটি কোনওভাবেই ওভারস্টেপ করেননি উমেশ।

আরও পড়ুন: চেন্নাইকে হেলায় হারিয়ে দ্বাদশ আইপিএলের ফাইনালে মুম্বই

স্বাভাবিকভাবেই জায়ান্ট স্ক্রিনে রিপ্লে দেখে অন-ফিল্ড আম্পায়ারের কাছে অভিযোগ জানাতে ছুটে আসেন উমেশ যাদব। দলনায়ক বিরাট কোহলি এসেও তাঁর সিদ্ধান্ত নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন লংয়ের কাছে। এরপর মৌখিক বচসায় জড়িয়ে পড়েন কোহলি-লং। মাঠেই চলে দু’পক্ষের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্য-বিনিময়।

আরও পড়ুন: বিরাটদের হতাশা ভুলিয়ে ইনস্টাগ্রাম সেনসেশন ‘আরসিবি গার্ল’

ঘটনার আঁচ গিয়ে পড়ে মাঠের বাইরে আম্পায়ার রুমেও। এক প্রত্যক্ষদর্শীর কথায়, ক্ষোভের বশে প্যাভিলিয়নে ফিরে আম্পায়ার রুমের দরজায় লাথি মেরে বসেন লং। ঘটনায় দরজার কাঁচ ক্ষতিগ্রস্থ হয়। প্রাথমিকভাবে ম্যাচ রেফারি নারায়ণ কুট্টির রিপোর্টে এমন কোনও ঘটনা প্রাধান্য না পেলেও বিষয়টি জানাজানি হতেই কর্ণাটক ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনকে ৫,০০০ টাকা ক্ষতিপূরণ বাবদ দান করেন লং।

আরও পড়ুন: অশ্বিনের পরামর্শ নিয়েই বিশ্বকাপে আফগান স্পিনার

তবে এখানেই থেমে থাকেনি বিষয়টি। ব্রিটিশ আম্পায়ারের অভব্য আচরণের একটি রিপোর্ট বোর্ডের কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটরের কাছে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্ণাটক ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন।