লন্ডন: ইউকে-র আদালতে বিজয় মালিয়ার প্রত্যর্পনের আবেদন খারিজ হয়ে গেল। সোমবার সেই আর্জি খারিজ করে দেওয়া হয়েছে।

আগামী সপ্তাহে ফের শুনানি হবে ওই মামলার।

আগেই ইউকে-র হোম সেক্রেটারি সাজিদ ডেভিড মালিয়া প্রত্যর্পণের নির্দেশ দিয়েছিলেন। এরপরই আদালতে আবেদন জানায় মালিয়া। এদিন সেই আবেদন খারিজ করে দেওয়া হয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই ভারতের জন্য এটা বড় সাফল্যের।

তবে আগামিদিনে মালিয়া ইউকে-র সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানাতে পারবেন না। তাঁর কাছে সেই অপশন নেই।

অন্যদিকে, এক সাক্ষাৎকালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দাবি করেছেন, বিজয় মালিয়ার ১৪০০০ কোটির সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। এরপর জবাবি ট্যুইট করেন মালিয়া। তিনি লেখেন, ‘যখন প্রধানমন্ত্রী নিজেই বলে দিয়েছেন আমার ব্যাংক থেকে নেওয়া টাকার চেয়েও বেশি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। তখন বিজেপির মুখপাত্ররা আমার বিরুদ্ধে এত কথা বলছে কেন?

নরেন্দ্র মোদী একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ‘মালিয়া ব্যাংক থেকে ৯ হাজার কোটি টাকার ঋণ নিয়েছে, আর সরকার তাঁর ১৪ হাজার কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে।”

নরেন্দ্র মোদীর এই বয়ানের পরিপ্রেক্ষিতে মালিয়া বলেন, ‘সরকার আমার থেকে ৫ হাজার কোটি টাকার বেশি সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে নিয়েছে, আর এরপরেও বিজেপির মুখপাত্ররা আমার বিরুদ্ধে বয়ানবাজি কেন করছে?”