নয়াদিল্লি: ভারতের আকাশে ঘুরে গেল ইউএফও। তাও আবার খোদ প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনের উপরেই। দিল্লি পুলিশ সামনে আনল এমনই চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট। গত ৭ জুন বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লির লোক কল্যাণ মার্গের উপর দিয়েই উড়ে যায় ওই ইউএফও। সঙ্গে সঙ্গে তল্লাশি শুরু করে নিরাপত্তারক্ষীরা। শেষমেস কোনও কিছুরই হদিশ পাওয়া যায়নি। তল্লাশি শেষ হলে দিল্লি পুলিশকে OK রিপোর্ট দেন পেরিমিটার সিকিউরিটি অফিসারেরা।

দিল্লি পুলিশের স্পেশাল কমিশনার ও চিফ স্পোকসপার্সন দিপেন্দ্র পাঠক ওই ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন, তবে ওটা ঠিক কী ছিল, সেবিষয়ে বিস্তারিত কোনও ব্যাখ্যা তাঁরা দেননি। নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখেই আর কিছু জানাতে চাইছে না পুলিশ। তবে ভয়ের কোনও কারণ দেখছে না পুলিশ।

ওইদিন সন্ধে সাড়ে ৭টা নাগাদ বিষয়টা প্রথম চোখে পড়ে। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় দিল্লি পুলিশের প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা ইউনিট ও এয়ারপোর্ট অপারেশন কন্ট্রোল সেন্টারে। সেখান থেকে খবর যায় এয়ার ফোর্স, সেন্ট্রাল ইন্ডাস্ট্রিয়াল সিকিউরিটি ফোর্সের স্টাফদের কাছে। একটুও দের না করে বিষয়টা জানানো হয় এনএসজি ও ইনটেলিজেন্স ব্যুরোকে। দিল্লি এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলেও হাই অ্যালার্ট জারি হয়।

এর আগে ২০১৭-র ১৭ সেপ্টেম্বর রাত ১০টা নাগাদ দিল্লি পুলিশের সিকিউরিটি কন্ট্রোল রুমে এরকমই একটি খবর গিয়েছিল। তবে এটিসি-র রাডারে কিছু ধরা পড়েনি।

এদিকে মোদীর বাড়ির উপরে কেন এল ভিনগ্রহের যান, তা নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে ট্যুইটারে। কেউ বলছেন, ৫৬ ইঞ্চির ছাতি দেখতে এসেছিল ভিনগ্রহীরা। কেউ আবার বলছে, অন্য গ্রহ থেকে মোদীর কাছে ফিটনেস শিখতে এসেছিল কেউ।