ওয়াশিংটন: ইউএফও নিয়ে জল্পনার শেষ  নেই! কেউ বলেন তেনারা আছেন আবার কারোর মতে ভিনগ্রহের জীব পুরোটাই কাল্পনিক! কিন্তু সেই হিসাবকেই পুরোটাই বদলে দিচ্ছে সাম্প্রতিক নথি। সম্প্রতি, মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ-র তরফ থেকে প্রকাশিত এক নথি অনুযায়ী, ১৯৫০ ও ১৯৬০ দশকে ভারত, ভুটান ও নেপালের আকাশে নাকি ঘোরাফেরা করতে দেখা গিয়েছিল ভিনগ্রহের মহাকাশযান। শুধু একবার নয়, একাধিকবার ভারতের আকাশে ইউএফও দেখা গিয়েছে বলে দাবি মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার।

সিআইএর তথ্য বলছে, ১৯৬৮ সালের ২৫ মার্চ, নেপালের কাসকিতে দেখা গিয়েছিল একটি রহস্যজনক বস্তুকে। এমনকি, লাদাখেও এমন এক বস্তুকে হঠাত করেই দেখা গিয়েছিল। শুধু তাই নয়, ইউএফও দেখা গিয়েছিল ভুটানের রাজধানী শহরের আকাশেও। যাঁরা এই ইউএফও-গুলো দেখেছিলেন বলে দাবি করেন, তাঁদের মতে, অনেক সময়ে এই বস্তুগুলি আকাশে ওড়ার সময় প্রচন্ড শব্দও হয়।

৬০এর দশকের পরে, ২০১২ ও ২০১৩ সালে, ইন্দো-চিন বর্ডার ও লাইন অফ অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোল-এর উপরেও দেখা গিয়েছিল রহস্যজনক এক বস্তুকে। ভারতীয় সেনাদের মতে, প্রায় ১০০টি ইউএফও দেখা গিয়েছিল ওই সময়ে। এক সময়ে ভাবা হয়েছিল যে, প্রতিবেশী দেশ চিন হয়তো ড্রোন পাঠিয়েছিল।

কিন্তু পরবর্তীকালে গবেষকরা জানাচ্ছেন, লাদাখের অবস্থানের কারণে, সেখান থেকে অন্যান্য গ্রহ, যেমন বৃহস্পতি ও বুধ, খুবই স্পষ্ট ভাবে দেখা যায়। খালি চোখে সেগুলোই ইউএফও বলে ভুল করাটাই স্বাভাবিক। আর এখানেই প্রশ্নের মুখে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএর নথি! শুধুমাত্র বিভ্রান্ত করতেই এই রিপোর্ট করা হয়েছিল! না এর পিছনে অন্য কোনও রহস্য রয়েছে……।