নয়াদিল্লি: ছোটার জন্য তৈরি উদয় এক্সপ্রেস৷ ডাবল ডেকার শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত এই ট্রেনটি ঘিরে যাত্রীদের মধ্যে উৎসাহ রয়েছে৷ এই লাক্সারি ডাবল ডেকার চেয়ারকার ট্রেন মূলত সেই সমস্ত যাত্রীদের জন্য তৈরি, যারা ট্রেনের যাত্রাপথে যাবতীয় সুবিধা চান, যেমন মিনি প্যান্ট্রি বা ফুড ভেন্ডিং মেশিন থাকবে এর কামরাগুলিতে৷

পঞ্জাবের কাপুরতালার রেল কোচ ফ্যাক্টরিতে নির্মাণ হওয়া উদয় এক্সপ্রেস গতি পাবে লোকসভা নির্বাচনের পর৷ নির্বাচনী বিধিভঙ্গ যাতে না হয়, তাই এই সিদ্ধান্ত৷ প্রাথমিক ভাবে এই ট্রেনের রুট নির্ধারিত করা হয়েছিল বেঙ্গালুরু থেকে কোয়েম্বাটোর৷ তবে পরবর্তী কালে আরও বেশ কিছু নতুন রুটের জন্য এই ট্রেনটিকে নির্ধারিত করা হবে৷ তবে সে সম্পর্কে এখনও বিশেষ কিছু জানা যায়নি৷

আরও পড়ুন : পুরী স্টেশনে ভয়াবহ আগুন, চারটি বগি ভস্মীভুত

এই নতুন ট্রেনটিতে থাকছে ৬টি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত চেয়ার কার কোচ, যাতে ১২০ জন করে যাত্রী বসার ব্যবস্থা রাখা হবে৷ এছাড়াও থাকছে তিনটি মিনি প্যান্ট্রি ও অতিরিক্ত জায়গা সম্বলিত বিশেষ কোচ৷ যেখানে বসতে পারবেন ১০৪ জন করে যাত্রী৷ থাকছে দুটি পাওয়ার কার৷ এই ট্রেনটিই ভারতীয় রেলের ইতিহাসে প্রথম ট্রেন, যেখানে থাকছে নিজস্ব ফুড ভেন্ডিং মেশিন৷ থাকছে স্বয়ংক্রিয় কফি বা চা মেশিনও৷ যাত্রীরা নিজেরাই সেখান থেকে ইচ্ছামত চা বা কফি পেতে পারেন৷ থাকবে প্যান্ট্রি ও ডাইনিং এরিয়াতে থাকছে মনোরঞ্জনের জন্য টিভির ব্যবস্থা৷

এই ট্রেনের সিটগুলি অনেকটা শতাব্দী এক্সপ্রেসের মতো হলেও লাল রংয়ের প্রাচুর্য এই ট্রেনে বেশি৷ থাকছে বিশেষ দেওয়াল সজ্জা৷ থাকবে বায়ো টয়লেট ও যাত্রী স্বাচ্ছন্দ্যের কথা মাথায় রেখে বিশেষ বায়ু নিরোধক ব্যবস্থা৷