নিউ ইয়র্ক: অসহায় মানুষের সহায়তার জন্য বিভিন্ন দেশে শান্তিরক্ষীবাহিনী মোতায়েন করেছে রাষ্ট্র সংঘ৷ কিন্তু বিনাস্বার্থে মদত পায় না ক্ষুধার্থ মানুষগুলো৷ যৌনতার বিনিময়ে  ক্ষুধার্ত-দরিদ্র মেয়েদের হাতে পণ্য তুলে দেয় শান্তিরক্ষীবাহিনী সদস্যরা৷ এমনই এক চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে রাষ্ট্রসংঘের অফিস অব ইন্টারনাল ওভারসাইট সার্ভিসের (ওআইওএস) প্রতিবেদনে৷

এই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হাইতি ও লাইবেরিয়ার কয়েকশো নারী ক্ষুধা ও দারিদ্র্যতার তাড়নায় নিজেদের শরীর বিক্রি করে দেয়৷ বিনিময়ে তাঁদের হাতে নগদ অর্থ, গয়না, মোবাইল ফোন এবং অন্যান্য পণ্য তুলে দেওয়া হয়৷

২০০৮ থেকে ২০১৩ সালের মধ্যে ৪৮০টি যৌন হেনস্থার অভিযোগ করা হয়েছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে৷ যৌন লালসার শিকার হচ্ছে শিশুরাও৷

হাইতি ও লাইবেরিয়ার কয়েকশত নারী জানিয়েছেন, ক্ষুধা, দারিদ্র্য ও জীবনমান উন্নয়নের তাড়নায় রাষ্ট্রসংঘের শান্তিরক্ষীদের কাছে দেহ বিক্রি করেছেন তাঁরা৷

২০১৪ সালে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষীদের বিরুদ্ধে এ ধরনের ৫১টি অভিযোগ এসেছে। এর আগের বছরও এরকম ৬৬টি অভিযোগ পাওয়া গিয়েছিল৷বর্তমানে সারা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে জাতিসংঘের এক লাখ ২৫ হাজার শান্তিরক্ষী মোতায়েন আছেন৷