নয়াদিল্লি:‌ করোনা তাড়াতে ভাবিজি পাঁপড় খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অর্জুন রাম মেঘওয়াল নিজেই এবার কোভিড পজিটিভ। শুধু তিনিই নন নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন কৃষিমন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী কৈলাশ চৌধুরিও। জলসম্পদ মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী অর্জুন রাম মেঘওয়াল বর্তমানে দিল্লির এইমসে চিকিৎসাধীন। অপর করোনা আক্রান্ত কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কৈলাশ চৌধুরি ভর্তি যোধপুরের একটি হাসপাতালে।

দেশজুড়ে কাঁপুনি ধরিয়েছে নোভেল করোনাভাইরাস। আমজনতা তো বটেই করোনা কাবু করছে একের পর ভিভিআইপিদেরও। শিল্পী থেকে শুরু করে তাবড় রাজনীতিবিদ, করোনার কামড় থেকে নিস্তার নেই কারও। গত কয়েকদিনে দেশে একের পর এক নেতা-মন্ত্রী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

এবার সেই তালিকায় নবতম সংযোজন দুই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। এঁদের একজন জলসম্পদ মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী অর্জুন রাম মেঘওয়াল। দিন কয়েক আগেই করোনা তাড়াতে ভাবিজি পাঁপড় খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন তিনি। তাঁর দাবি ছিল, এই পাঁপড় খেলেই শরীরে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য তৈরি হবে অ্যান্টিবডি।

খোদ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর এই অদ্ভুত দাবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। যদিও যে রোগ তাড়াতে তিনি অন্যকে পাঁপড় খাওয়ার পরামর্শ দিলেন এবার তিনিই সেই রোগে আক্রান্ত হয়েছেন।

অন্যদিকে, করোনা থাবা বসিয়েছে আরও এক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কৈলাস চৌধুরির শরীরেও। এর আগেই করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধানও।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও