চেন্নাই: ভুয়ো পরিচয় দিয়ে রাজ্যে ঢোকা দুই সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করল তামিলনাড়ু পুলিশ৷ জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-তইবার সঙ্গে যোগ রয়েছে, এই অভিযোগে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে৷ এর আগে বৃহস্পতিবার কেরালা থেকে এক সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়৷

ওই ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ করেই তামিলনাড়ুর এই দুই ব্যক্তির সন্ধান মেলে বলে পুলিশ সূত্রে খবর৷ লস্করের বেশ কয়েকজন জঙ্গি নিজেদের হিন্দু পরিচয় দিয়ে তামিলনাড়ুতে ঢুকে পড়েছিল বলে খবর মেলে৷ তারপরেই রাজ্য জুড়ে তল্লাশি শুরু করে পুলিশ৷ বড় বড় শহরগুলিতে ও থানাগুলিতে সতর্কবার্তা পাঠানো হয়৷ জানানো হয় ছয়জন জঙ্গি রাজ্যে ঢুকে পড়েছে৷ এরা সমুদ্রপথ হয়ে রাজ্যে ঢুকেছে বলে খবর মেলে৷

আরও পড়ুন : শ্রীকৃষ্ণ মন্দির সংস্কারে সামিল হয়ে বিদেশ সফরেও জন্মাষ্টমী পালন করবেন মোদী

সূত্রের খবর অনুযায়ী, এই সন্ত্রাসবাদীরা দেশের গুরুত্বপূর্ণ জায়গা যেমন- বিমান বন্দর, মন্দির, গুরুত্বপূর্ণ রেল স্টেশন ছাড়াও পর্যটনস্থল এবং সরকারি দূতাবাসের উপরেও হামলা করতে পারে। তামিলনাড়ু সরকারের পক্ষ থেকে দেশের উপকূল বাহিনী, গোয়েন্দা এবং সমস্ত পুলিশ প্রশাসনকে সবসময় হামলার বিষয়ে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। বড়ধরনের নাশকতা এড়াতেই এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

গোয়েন্দা এবং পুলিশের তরফে যে সমস্ত বিষয় গুলির উপরে কড়া নজরদারি চালানো হচ্ছে সেগুলি হল, রাজ্যের বিভিন্ন স্থানের বড় বড় লজ, ছোটবড় নৌকা, মন্দির, পর্যটনস্থল, বিমানবন্দর, গুরুত্বপূর্ণ রেল স্টেশন এবং বাসস্ট্যান্ড গুলি। এছাড়াও গোয়েন্দা সূত্রে জানা গিয়েছে, যে কোনও সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে পুলিশ নিরাপত্তার জন্য আটক করতে পারে৷

আরও পড়ুন : ইউটিউবে হীরে খোঁজার উপায় দেখতে গিয়ে হাতে এল সত্যিকারের হীরে

বৃহস্পতিবার তামিলনাড়ুর কোয়েম্বাটুর সহ রাজ্যের সমস্ত পুলিশ কমিশনার এবং প্রশাসনের উচ্চপদস্থ কর্তাদের জঙ্গি অনুপ্রবেশ সম্পর্কে সতর্ক করে দেওয়া হয়৷ জানা যায়, ৫ জন পাকিস্তানি ও ১ জন শ্রীলঙ্কান সন্ত্রাসবাদীর দল বৃহস্পতিবার রাতে কোয়েম্বাটুরে ঢুকেছে৷

পাকিস্তানি নাগরিকের পরিচয়ও প্রকাশ করে পুলিশ৷ ইলিয়াস আনওয়ার নামে ওই ব্যক্তি তিলক কেটে শহরে ঘুরছে বলে জানায় পুলিশ৷ তল্লাশি বাড়িয়ে দেওয়া হয় শহর জুড়ে৷ চলে পেট্রলিং৷ শহরের সীমান্ত এলাকায় নাকা চেকিং চলে৷ চেন্নাইয়ের পুলিশ কমিশনার এ কে বিশ্বনাথন জানান, গোটা রাজ্যের পুলিশ সতর্ক রয়েছে৷ স্থানীয় বাসিন্দাদেরও সতর্ক করা হয়েছে৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ