মালদহ: বোনকে কটূক্তি করার প্রতিবাদ করে আক্রান্ত দিদি ও মাসি। ঘটনাটি ঘটেছে মালদহ কালিয়াচক থানার আলিনগর গ্রামে। গুরুতর আহত অবস্থায় একজনকে মালদহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে কালিয়াচক থানায়। অভিযুক্তরা অধরা। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷

আরও পড়ুন: হাজার হাতের দুর্গা এবার পূর্ব মেদিনীপুরে

অভিযোগ, গ্রামের এক তরুণীকে উত্যক্ত করত প্রতিবেশী যুবক হাসনাত৷ রাস্তায় দেখলেই কটূক্তি করত৷ দিন দিন মুখের ভাষা শালীনতার সীমা পার করছিল৷ এরপরই ওই তরুণী বিষয়টি বাড়িতে জানায়৷ বোন ঝি’র কথা শুনে ওই তরুণীর মাসি অভিযুক্ত হাসনাতের বাড়িতে বিষয়টি জানাতে যায়। উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করেন তিনি। অভিযোগ, তখনই অভিযুক্ত যুবকের দাদা তাঁকে মারধর শুরু করে।

বাঁচাতে গিয়ে আক্রান্ত হন ওই মহিলার মেয়ে৷ গুরুতর জখম অবস্থায় দু’জনকে মালদহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে প্রাথমিক চিকিৎসার পর মহিলাকে ছেড়ে দেওয়া হয়৷ কিন্তু মেয়ের অবস্থা গুরুতর বলে মেডিকেলে চিকিৎসাধীন৷ এই ঘটনায় তিনজনের বিরুদ্ধে কালিয়াচক থানায় শ্লীলতাহানি, মারধর ও ইভটিজিং-এর অভিযোগ দায়ের হয়েছে। যদিও অভিযুক্তরা এখনও অধরা। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷

আরও পড়ুন: দুর্গাপুজোর জন্য দেওয়া টাকা ফেরাব কীভাবে, প্রশ্ন তুললেন মমতা