কলকাতা: সংকটজনক করোনা রোগীর জন্য প্লাজমা দান করলেন কলকাতা পুলিশের দুই কর্মী। এক আত্মীয়ের জন্য প্লাজমা চেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেদন করেন এক ব্যক্তি। সেই আবেদন দেখেই এগিয়ে আসেন কলকাতা পুলিশের দুই কর্মী। আগ করোনা আক্রান্ত হয়ে বর্তমানে সুস্থ তাঁরা। দেরি না করে দ্রুত যোগাযোগ করে সংকটজনক করোনা রোগীকে বাঁচাতে প্লাজমা দান করেন তাঁরা।

করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে চিকিৎসক-সহ অন্য স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গেই কাঁদে কাঁধ মিলিয়ে একেবারে প্রথম সারিতে থেকে লড়াই করছে আমাদের পুলিশ বিভাগ। গত কয়েকমাসে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই চালাতে গিয়ে একের পর এক পুলিশকর্মীও আক্রান্ত হয়েছেন।

করোনা প্রাণ কেড়েছে একাধিক পুলিশ কর্মীরও। জীবনের ঝুঁকি নিয়েই কর্তব্যে অবিচল পুলিশকর্মীরা। অত্যন্ত সংকটজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভরতি এক করোনা রোগী সুস্থ করে তুলতে এবার প্লাজমা দান করলেন কলকাতা পুলিশের দুই কর্মী।

কলকাতা পুলিশের কনস্টেবল ভাস্কর বেরা এবং পুলিশের গাড়িচালক পাপ্পু সিং। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্লাজমা দানের ওই আবেদন দেখেই তাঁরা তৎপর হন। তড়িঘড়ি প্লাজমা দানের জন্য পৌঁছে যান বেসরকারি হাসপাতালে। করোনা মহামারীর কবলে ইতিমধ্যেই বহু পুলিশকর্মী পড়েছেন। অনেকেই আবার সুস্থ হয়ে উঠেছেন। সুস্থ হয়ে ওঠা ওই দুই পুলিশকর্মীই প্লাজমা দান করেছেন।

জানা গিয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় করোনায় আক্রান্ত এক সংকটজনক রোগীর প্লাজমা থেরাপির চিকিৎসার প্রয়োজন বলে খবর পান ওই দুই পুলিশকর্মী। প্লাজমা দানের জন্য আবেদন করা হয় সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই। সেই আবেদন নজরে আসতেই তৎপর হন ওই দুই পুলিশকর্মী।

নিজেদের মধ্যে আলোচনা সেরেই দ্রুত রোগীর পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন তাঁরা। সময় নষ্ট না করেই দ্রুত তাঁরা পৌঁছে যান হাসপাতালে। নিজেদের প্লাজমা দান করেন তাঁরা। পুলিশকর্মীদের এই মহানুভবতায় কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন রোগীর পরিবারের সদস্যরা।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা