স্টাফ রিপোর্টার, হাওড়া: কালবৈশাখী ঝড়ে মৃতদের পরিবার পিছু দু’লক্ষ টাকা আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়৷ মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার পরই শুক্রবার সন্ধ্যায় ৫৭ নম্বর ওয়ার্ডের পুরমাতা চৈতালি বিশ্বাস নিজে গিয়ে মৃত জয়িত দাসের বাবা জীবনকৃষ্ণ দাসের হাতে তুলে দেন ক্ষতিপূরণ বাবদ সরকারি ২লক্ষ টাকার চেক৷ তার সঙ্গে ছিলেন বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের আধিকারিকরাও৷

এই প্রসঙ্গে চৈতালিদেবী জানিয়েছেন, শুক্রবারেই ক্ষতিপুরণের চেকগুলি তুলে দেওয়া হয় সব মৃতের পরিবারের হাতে৷ মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষতিপূরণের ঘোষণা করার পরে অল্প সময়ের মধ্যেই চেক তৈরি করে তা গ্রহীতাদের হাতে তুলে দিয়ে এক নজির সৃষ্টি করল জেলা প্রশাসন৷ এমনই দাবি তৃণমূল কংগ্রেস নেতাদের একাংশের৷

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার কালবৈশাখীর ঝড়ে বেলুড়ে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে মারা যান এক কিশোরীসহ চারজন৷ মৃতদের নাম জয়িত দাশ (২৬), সত্যজিত দাশ(৫৫), লাবন্য শাহু(৬২), খুশি মৌর্য (১৬)৷ একইভাবে পোদড়া মোড়ে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে মারা যান জয়দেব দাশ (২২)৷ চ্যাটার্জিহাট থানা এলাকার ডুমুরজলা স্টেডিয়ামের রাস্তায় গাছ ভেঙে পড়ে মারা যান মুনমুন দাস (২৪)৷ এছাড়াও শহরের বিভিন্ন এলাকায় গাছের ডাল ভেঙ্গে পড়ে জখম হন বেশ কয়েকজন৷ ক্ষতিগ্রস্ত হয় বেশকিছু বাড়ি৷