মুম্বই: এবার করোনা থাবা বসালো বলিউড প্রযোজক-পরিচালক করণ জোহরের বাড়িতে। করণের বাড়ির দুই পরিচারক করোনা আক্রান্ত। নিজেই সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টের মাধ্যমে জানিয়েছেন প্রযোজক। তাঁরা কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন এই মুহূর্তে।

করণ জানিয়েছেন বাড়ির সকলেই ১৪ দিন আইসোলেশনে থাকবেন। যদিও তাঁদের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। তিনি লিখছেন, আমি জানাতে চাই যে আমার বাড়ির দুই পরিচারক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। উপসর্গ দেখা মাত্রই তাঁদের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। আমাদের বিল্ডিং-এরই একটি অংশে রয়েছেন তাঁরা। বিএমসি-কেও তৎক্ষণাৎ খবর দেওয়া হয়। তাঁর এসে বিল্ডিংটিকে স্যানিটাইজ করেছেন।

করণ আরও লিখেছেন, বাকি পরিচারক ও পরিবারের আমরা সকলেই ভালো আছি। আমাদের কোনও উপসর্গও নেই। সকালে আমাদের লালারস পরীক্ষা করা হয়। তার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। কিন্তু আমরা সকলেই আগামী ১৪ দিন আইসোলেশনে থাকব।

আমরা নিজেদের দায়বদ্ধতা ভুলব না পরস্পরকে নিরাপদে রাখার জন্য। নিশ্চিত করছি দুজন পরিচারককেই ভালো ভাবে চিকিৎসা করানো হবে। এই কঠিন সময়ে বাড়িতে থেকে সব নিয়মগুলি মেনে চলুন। আমার কোনও সন্দেহ নেই যে এই ভাইরাসকে আমরা শেষ করতে পারব। বাড়িতে থাকুন ও সুস্থ থাকুন।

প্রসঙ্গত, করণ বাড়িতে তাঁর মা হীরু জোহর ও দুই সন্তান যশ ও রুহিকে নিয়ে থাকেন। কয়েকদিন আগেই বলিউডের আরও এক প্রযোজক বনি কাপুরের বাড়িতেও করোনা হানা দিয়েছে। প্রথমে তাঁদের বাড়ির পরিচারক চরণ শাহু আক্রান্ত হন। চরণের শরীর ভালো ছিল না। বেশ কিছু উপসর্গ দেখা যাচ্ছিল। তারপরই তাকে কোভিড ১৯ পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। পরীক্ষার পরে লোখান্ডওয়ালার বাড়িতে সঙ্গে সঙ্গে চরণকে আইসোলেশনে রাখা হয়। এর পরে রিপোর্টে ফলাফল আসে পজিটিভ কোভিড ১৯। জানিয়েছিলেন বনি-কাপুর নিজেই।

বলিউড প্রযোজক জানিয়েছিলেন, চরণের রিপোর্ট পজিটিভ এলেও তিনি নিজে এবং তার দুই মেয়ে জাহ্নবী ও খুশি সহ বাড়ির বাকি কর্মীরা সুস্থ রয়েছেন। প্রত্যেকেই যথাযথ সর্তকতা এবং সচেতনতা অবলম্বন করছেন। কিন্তু তার পরেও আরও দুই পরিচারকের শরীরে মেলে কোভিড ১৯।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প