তাইপেই: জোরালো ভূমিকম্পে কেঁপে গিয়েছে তাইওয়ান৷ কম্পনের মাত্রা ৬.৪৷ ভুমিকম্পে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দেশটির বন্দর শহর হুয়ালিয়েন৷ সেখানে ধসে পড়েছে বাড়িঘর ও পাঁচতারা হোটেল৷ এখনও অবধি ২ জনের মারা যাওয়ার খবর মিলেছে৷ আহত দুশোর বেশি৷

মঙ্গলবার গভীর রাতে কেঁপে ওঠে তাইওয়ান৷ তবে রাজধানী তাইপে থেকে ১৬০কিমি দুরে অবস্থিত হুয়ালিয়েনে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ সবচেয়ে বেশি৷ শহরের পাঁচতারা মার্শাল হোটেলের নিচের কয়েকটি তল মাটির সঙ্গে মিশে গিয়েছে৷ হেলে গিয়েছে বেশ কিছু বহুতল৷ তাতে আটকে পড়েছেন অনেকে৷

সোশ্যাল মিডিয়ায় তাইওয়ান ভূমিকম্পের অনেক ছবি ঘোরাফেরা করছে৷ তাতে দেখা গিয়েছে, রাস্তাঘাটে ফাটল দেখা গিয়েছে৷ বিপদজনকভাবে সামনের দিকে ঝুঁকে পড়েছে কিছু বহুতল৷ এছাড়া ফাটল ধরেছে অন্যান্য বাড়িঘর ও হাসপাতালেও৷ শুরু হয়েছে উদ্ধারকার্য৷ উদ্ধারে গতি আনতে নামানো হয়েছে সেনা৷

উপকূলবর্তী শহর হুয়ালিয়ানে প্রায় এক লক্ষ লোকের বাস৷ শহরবাসীর দাবি, দশ বছর পর এরকম দুলুনিতে কেঁপে উঠেছে হুয়ালিয়েন৷ এখান থেকেই দু’জন লোকের মারা যাওয়ার খবর মিলেছে৷ মৃতের সংখ্যা আরও বাড়ার আশংকা করা হচ্ছে৷ মার্শাল হোটেলের নিচের তলগুলি একেবারে মাটিতে মিশে গিয়েছে৷ যার ফলে হোটেলটি একদিকে বিপজ্জনকভাবে হেলে পড়েছে৷ হোটেলের উপরের তলে আটকে পড়া পর্যটকদের ক্রেনের সাহায্যে উদ্ধারের চেষ্টা করা হচ্ছে৷

এখনও অবধি প্রায় ৩০ জনকে উদ্ধার করা গিয়েছে৷ যারা আটকে পড়ে আছেন তাদেরকে মোবাইল টর্চের মাধ্যমে উদ্ধারকারীদের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করতে দেখা গিয়েছে৷

তাইওয়ানে ঘন ঘন ভূমিকম্প হয়৷ গত কয়েকদিনে সেখানে পনেরোটি আফটারশক হয়েছে৷ এদিনের কম্পন ছিল আরও জোরালো৷ কয়েক বছর আগে তাইওয়ানে একই মাত্রার কম্পনে ১২০ জনের মৃত্যু হয়েছিল৷