কলকাতা: ২২ অক্টোবর দেশজুড়ে ব্যাংক ধর্মঘট ৷১০টি ব্যাংককে মিলে চারটি ব্যাংক গড়ার উদ্যোগ নিয়েছে কেন্দ্র তারই বিরোধিতা করতে মূলত এই ধর্মঘট ৷ অল ইন্ডিয়া ব্যাংক এমপ্লয়িজ অ্যাসোসিয়েশন (এআইবিইএ) এবং ব্যাংক এমপ্লয়িজ ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া (বেফি) দুটি ইউনিয়ন মিলে এই ধর্মঘট ডেকেছে ৷ এআইবিইএ সভাপতি রাজেন নাগর এ কথা জানিয়েছেন৷

গত মাসে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ জানান, বেশ কয়েকটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক সংযুক্তিকরণ করতে চলেছে কেন্দ্র৷ অর্থমন্ত্রী ঘোষণা করেন মোট ১০টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের সংযুক্তিকরণ করা হচ্ছে যাদের থেকে চারটি বড় ব্যাংক গড়া হবে৷ বলা হয়েছিল, ইণ্ডিয়ান ব্যাংক মিশে যাবে এলাহাবাদ ব্যাংকের সঙ্গে, পিএনবি, ওবিসি ও ইউনাইটেড ব্যাংক অফ ইণ্ডিয়া মিশে যাচ্ছে এক সাথে৷ এক্ষেত্রে মূল ব্যাংক হবে পিএনবি৷ ইউনিয়ন ব্যাংক, অন্ধ্র ব্যাংক ও কর্পোরেট ব্য়াংক মিশে যাচ্ছে৷

ইতিমধ্যে ব্যাংকের চারটি অফিসারদের ইউনিয়ন ২৬ এবং ২৭সেপ্টেম্বর দুদিনের ধর্মঘট ডেকেছে এই ব্যাংক সংযুক্তিকরণের প্রতিবাদে ৷ এদিকে আবার যৌথ ভাবে ইন্ডিয়ান ব্যাংক অ্যাসোসিয়েশন এবং চিফ লেবর কমিশনকে এই দুই ইউনিয়নের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে ২২ অক্টোবর সকাল ছটা থেকে ২৩ অক্বোর সকাল ৬টা পর্যন্ত এই ধর্মঘট চলবে৷

এই দুই ইউনিয়নের দাবিগুলির মধ্যে রয়েছে , – সংযুক্তিকরণ বন্ধ করা , ব্যাংকিং সেক্টরে সংস্কার বন্ধ করা , অদেয় ঋণ আদায়ের ব্যবস্থা করা এবং ঋণ খেলাপিদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া , গ্রাহকদের নানা ভাবে জারিমানা না নেওয়া , চাকুরির নিরাপত্তায় আঘাত না আনা এবং পর্যাপ্ত নিয়োগের ব্যবস্থা করা৷