স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: লেকটাউন থানা এলাকার দক্ষিণদারিতে স্রেফ চোর সন্দেহে প্রকাশ্যে চলল গণধোলাই৷ এক জন নয়,দু’জনকে রাস্তার ডিভাইডারে বেঁধে চলে গণপ্রহার৷ খবর পেয়ে লেকটাউন থানার পুলিশ এসে বাবু সামন্ত ও সঞ্জয় ভূইয়া নামে দুই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে হাসপাতাল পাঠায়৷ এই ঘটনায় ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ দু’জনকে গ্রেফতার করেছে৷ ধৃতরা হল,মনোহর কুমার রায় ও সুনিল কুমার রায়৷

প্রশাসন মাঝে মাঝেই সাধারণ মানুষের উদ্দ্যেশ্য প্রচার করে থাকেন যে, নিজেদের হাতে আইন তুলে নেবেন না৷ সে প্রচার যে, কোনও কাজেই আসছে না, তা বোঝা গেল বুধবারের ওই ঘটনায়৷ লেকটাউন থানার কাজি নজরুল ইসলাম সরণি৷ তার পাশেই দক্ষিণদারিতে রাস্তার ডিভাইডারে বাঁধা দুই ব্যক্তি৷ দড়ি দিয়ে বেঁধে দেওয়া হয়েছে তাদের হাত ও পা৷ গায়ের পোশাক খুলে নিয়ে চলছে গণধোলাই৷

শুধু তাই নয়, একটি কাপড়ে আগুন জ্বালিয়ে পুড়িয়ে মারার ভয়ও দেখানো হয়৷ সে সময় তার পাশ দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন এনেকেই৷ তাছাড়া পাশ দিয়ে চলে যাচ্ছে একের পর এক যাত্রী বোঝাই বাস৷ সবাই একবার মুখ বাড়িয়ে দেখছেন কিন্তু কেউ সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়নি৷ অমানবিক শহর কবে মানবিক হবে উঠছে প্রশ্ন?

স্থানীয়দের অভিযোগ,লেকটাউন দক্ষিণদারিতে উড়ালপুলের নীচে ভিআইপি সার্ভিস রোডের ফাঁকা জায়গায় স্থানীয় কিছু বাসিন্দা গাড়ি রাখেন৷ দীর্ঘদিন ধরে সেই গাড়ির ব্যাটারি, তেল চুরি হয়ে যাচ্ছে৷ কে বা কারা এই কাজ করছে তা বোঝতে পারছিল না স্থানীয়রা৷ পুলিশকে বার বার জানানোর পরও সমস্যার কোনও সমাধান হয়নি বলে দাবি৷ বুধবার সকালে ওই এলাকায় দু’জন ভবঘুরেকে ঘুরতে দেখেন কিছু স্থানীয় বাসিন্দা৷ ভবঘুরেদের চোর সন্দেহে আটক করে চলে গণপ্রহার৷ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে লেকটাউন থানার পুলিশ৷ ঘটনাস্থল থেকে দু’জনকে গ্রেফতার করে লেকটাউন থানার পুলিশ৷