বেঙ্গালুরু: ‘এরো ইন্ডিয়া’ শো-তে ভয়াবহ দুর্ঘটনা। মুখোমুখি সংঘর্ষে ভেঙে পড়ল দুই এয়ারক্রাফট।

মঙ্গলবার সকালেই ভয়াবহ এই দুর্ঘটনা। বায়ুসেনার বিশেষ প্রদর্শনী ‘এরো ইন্ডিয়া’র রিহার্সাল চলছিল। সেখানেই উড়ছিল সূর্য কিরণ অ্যরোব্যাটিক্স টিমের দুই বিমান। মাঝ আকাশে মুখোমুখি চলে আসে বিমান দুটি। ইয়েলাহাংকা এয়ারবেসে ভেঙে পড়ে সেই দুই বিমান।

যদিও বিমানে থাকা পাইলটরা নিরাপদে বেরিয়ে আসতে পেরেছেন বলে সূত্রের খবর।

আরও পড়ুন: দু’দিনে পাকিস্তানের ১৭০টি ট্যাংক উড়িয়ে দিয়েছিল ভারত

সূর্য কিরণ অ্যারোবটিক্স টিম এই শো-তে অংশ নেয় প্রত্যেক বছরেই। এবার তারা কিরন এয়ারক্রাফটের বদলে হক এয়ারক্রাফট ব্যবহার করা শুরু করেছিল। সব বিমানের প্যারামিটার স্বাভাবিক ছিল বলেই জানা গিয়েছে। সোমবার তারা সম্পূর্ণ ফরমেশনে ওড়া শুরু করে।

সোমবারের পর মঙ্গলবারও এই টিম ফের রিহার্সালে অংশ নেয়। বুধবার থেকে এয়ার ফোর্সের এই অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ প্রদর্শনী শুরু হওয়ার কথা। তার আগে পুরোদমে চলছিল রিহার্সাল। সেই সময়েই এই দুর্ঘটনা।

আরও পড়ুন: ‘অস্ত্র হাতে দেখলেই গুলি’, পুলওয়ামাকাণ্ডে কড়া বার্তা সেনার

নীতি মীনাক্ষী ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের কাছেই ভেঙে পড়েছে বিমান দুটি। পাইলটরা বেঁচে আছেন, তবে তাঁদের অবস্থা ঠিক কীরকম তা এখনও বায়ুসেনার তরফ থেকে জানানো হয়নি।

গত জানুয়ারিতেই দুর্ঘটনার মুখে পড়ে বায়ুসেনা বিমান। ভেঙে পড়ে এয়াফোর্সের জাগুয়ার বিমান। উত্তরপ্রদেশের কুশীনগরের কাছে ঘটেছে ওই ঘটনা।

গত ২৮ জানুয়ারি সকালে দুর্ঘটনা ঘটে লখনউ থেকে ৩০০০ কিলোমিটার দূরে। রুটিন মাফিক মহড়ার সময়েই এই দুর্ঘটনা হয়েছিল। পাইলট সাবধানে বেরিয়ে আসতে পেরেছেন বলে খবর। প্রথমটায় তাঁর কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি। পরে উদ্ধার করা হয়।

এক বছরের মধ্যে দুটি জাগুয়ার বিমান ভেঙে পড়ে এই নিয়ে। গত বছরের জুন মাসে আর একটি জাগুয়ার ভেঙে পড়ে। সেই বিমানটি জামনগর এয়ারবেস থেকে উড়েছিল। ওই ঘটনা কেউ হতাহত হননি।