নয়াদিল্লি: ভারতের বাজার এবার ধরতে চাইছে ট্যুইটারও৷ তারা এবার ভারতে বিনিয়োগে আগ্রহী৷ মঙ্গলবার নয়াদিল্লিতে এমনই ইচ্ছাপ্রকাশ করেছেন ট্যুইটারের সিইও তথা অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক ডরসি৷

এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি৷ সেই বৈঠকেই তিনি এই ইচ্ছাপ্রকাশ করেছেন বলে জানা গিয়েছে৷ এদিনের বৈঠকে ভুয়ো খবর, আপত্তিকর পোস্ট-সহ নানা বিষয়ে আলোচনা হয়৷

আরও পড়ুন: সিঙ্গাপুর সফরে প্রধানমন্ত্রী মোদী

জ্যাক ডরসির সঙ্গে বৈঠকে খুশি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ তিনি নিজের ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে এ নিয়ে পোস্টও করেছেন৷ ট্যুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘‘জ্যাকের সঙ্গে দেখা হওয়ায় দেখা হওয়ায় খুব আনন্দিত৷ যেভাবে তিনি ট্যুইটারকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন, তা প্রশংসার যোগ্য৷ আমি ট্যুইটার পছন্দ করি৷ এই মাধ্যম থেকে আমি অনেক বন্ধু পেয়েছি৷ এর মাধ্যমে বিভিন্ন মানুষের প্রতিভাও উপভোগ করার সুযোগ পাই৷’’

অন্যদিকে জ্যাক ডরসিও প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন৷ ট্যুইটার নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ভাবনাচিন্তারও প্রশংসা করে একটি ট্যুইট করেছেন জ্যাক৷ সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘‘আপনার সঙ্গে বৈঠক করে আমি খুশি৷’’

আরও পড়ুন: ভোটের কালি তুলতে মরিয়া গ্রামবাসীরা

এর আগে সোমবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র রাষ্ট্রমন্ত্রী রাজীব গাউবা ট্যুইটারের সিইও-র সঙ্গে বৈঠক করেন৷ সেই বৈঠকে ট্যুইটারের একাধিক আধিকারিক উপস্থিত ছিলেন৷ সেখানেও ট্যুইটারে অনৈতিক ও আপত্তিকর পোস্টগুলি নিয়ে আলোচনা হয় বলে জানা গিয়েছে৷

এছাড়া কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে ট্যুইটারকে জানানো হয়েছে যে কখনও কোনও তদন্তের বিষয়ে যখন ভারত থেকে আধিকারিকরা তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন, তখন দ্রুত সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করতে হবে৷

আরও পড়ুন: যাদুঘরে বন্দিদের আঁকা ছবির প্রদর্শনী