মুম্বই: বলি-পাড়ায় অক্ষয়-ট্যুইঙ্কেল কেমিস্ট্রির কথায় সবার মুখে ঘোরে। তাসের ঘরের মতো যখন ভেঙে পড়ছে দীর্ঘদিনে সম্পর্ক। তখন সবার এক কথা, মেড ফর ইচ আদার। এতগুলি বছর পাড় করে এক চিলতেও ফাটল ধরেনি অক্ষয়-ট্যুইঙ্কেল কেমিস্ট্রিতে। এখন প্রশ্ন হচ্ছে কি এই জোড়াল দাম্পত্যের ফর্মুলা! নায়িকার কথায়, প্রতারণাহীন সম্পর্ক। এটাই গূঢ় রহস্য তাঁদের বৈবাহিক জীবনের। যেটা তিনি শিখেছেন স্বামী অক্ষয়ের কাছ থেকে।

তবে ট্যুইঙ্কেলের এমন মন্তব্যের পর নিন্দুকেরা বলছেন অন্যকথা। তাঁদের মতে, এসবই অক্ষয়ের ভাল সাজার চেষ্টা। টুইঙ্কলকে বিয়ের আগে তাঁর সম্পর্ক ছিল রবিনা টন্ডন আর শিল্পা শেঠির সঙ্গে। তাঁদের সঙ্গে প্রতারণা করে সেই সম্পর্ক ভাঙেন অক্ষয় নিজেই। তার পর বিয়ে করেন টুইঙ্কলকে। বিয়ের পরেও প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার সঙ্গে চলেছিল তাঁর হালকা একটা প্রেমপর্ব। সেই দিকে যাতে অসুবিধা না হয়, সেই জন্যই স্ত্রীর কাছে এই প্রতারণাহীন সম্পর্কের নমুনা দেওয়া। অর্থাৎ যাঁর সঙ্গে যা-ই করে থাকুন না কেন তিনি, স্ত্রীকে প্রতারণা কখনই করবেন না! দিনের শেষে ফিরে আসবেন তাঁর কাছেই।

কিন্তু লোকে যাই বলুক না কেন স্বামীকে নিয়ে কোনও প্রশ্ন নেই ট্যুইঙ্কেলের মনে। চুটিয়ে সংসার করছেন তিনি। আর অক্ষয়ও এখন ট্যুইঙ্কেল অন্তপ্রাণ। তাই আপনিও যদি এমন দাম্পত্য চান তাহলে মেনে চলুন ফর্মুলা ‘প্রতারণাহীন’।