ওয়াশিংটন: জুনে জি সেভেন সামিট অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও তা পিছিয়ে দিচ্ছেন মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প। শনিবার নিজেই একথা জানিয়েছেন মার্কিন রাষ্ট্রপতি। এছাড়া তিনি জানিয়েছেন, এই সামিটে ভারত সহ অন্যান্য দেশকে আমন্ত্রণও জানাবেন।

তিনি বলেছেন, ” আমি মনে করি না এখন বিশ্বে কী চলছে তা সঠিক ভাবে বুপস্থাপন করতে পারে G7। এটি দেশগুলির একটি অতি পুরানো গ্রুপ”।

পাশাপাশি ট্রাম্প জানিয়েছেন, তিনি এই সামিটে রাশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, অস্ট্রেলিয়া এবং ভারতকে যোগ দিতে আমন্ত্রণ জানাবেন। পাশাপাশি ট্রাম্প জানিয়েছেন, জেনারেল অ্যাসেমব্লির আগে বা পরে সেপ্টেম্বরে এই সামিট হতে পারে।

উল্লেখ্য, উন্নত প্রথম বিশ্বের দেশগুলি আন্তর্জাতিক অর্থনৈতিক সমন্বয় নিয়ে আলোচনার জন্য বার্ষিক বৈঠক করে। এই দেশের মধ্যে রয়েছে ব্রিটেন, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, জাপান এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র । যদি ভারতও এই সামিটে যোগ দিতে পারে তা নিঃসন্দেহে নয়া কীর্তি হবে।

যদিও এবারের জি সেভেনের সমাবেশ উপস্থিত হওয়ার জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমন্ত্রণ প্রত্যাখ্যান করেছেন জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল। জানাও হয়েছে এই পরিস্থিতিতে সশরীরে উপস্থিত হবেন না ম্যার্কেল। জি সেভেন সম্মেলনের আমন্ত্রণের জন্য ট্রাম্পকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।