ওয়াশিংটন: ডেমোক্র‌্যাটদের সমালোচনা করতে গিয়ে ফাঁপড়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট৷ বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্যের অভিযোগ ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে৷ সমালোচনার ঝড় বিশ্বজুড়ে৷ কিন্তু থামার পাত্র নন তিনি৷ উল্টে সমালোচকদের কটাক্ষ করে ট্যুইট করেছেন ট্রাম্প৷ তাতে লেখা রয়েছে, আমাদের দেশ স্বাধীন, সুন্দর এবং খুবই সফল। কেউ যদি এ দেশকে অপছন্দ করে, এখানে সুখী না হয়, তা হলে সে দেশ ছাড়তেই পারে।”

এরপর বিতর্ক আরও তীব্র হয়৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় মার্কিন প্রেসিডেন্টের মন্তব্যের বিরুদ্ধে আওয়াজ উঠতে শুরু করেছে৷ যার ফলে আরও পোক্ত হচ্ছে ‘বর্ণবিদ্বেষী’ তকমা৷

বিতর্কের সূত্রপাত গত রবিবার৷ মেরিকার কংগ্রেসের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির সমালোচনা করেছিলেন ডেমোক্র্যাট পার্টির চার কৃষ্ণাঙ্গ মহিলা জনপ্রতিনিধি। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তাঁদের উপদেশ দিয়ে বসেন, তোমরা যে দেশ থেকে এসেছো, সেখানেই ফিরে যাও।

এরপরই ওই চার জনপ্রতিনিধি ছাড়াও ডেমোক্র্যাট পার্টির তরফে ট্রাম্পের সমালোচনা শুরু করে৷ বলা হয়, প্রেসিডেন্ট যে ‘নতুন আমেরিকা’ গড়তে চান, সেখানে শ্বেতাঙ্গ বাদে আর কারও জায়গা নেই। বহু রিপাবলিকানও স্ট্রং ম্যানের বিরোধীতা করেন৷ কিন্তু তাতে কী দমার পাত্র ট্রাম্প? উলটে ট্যুইটে সমালোচকদের মুখ বন্ধ করতে চেয়েছেন তিনি৷ ফলে বিতর্ক ক্রমশ গভীর হয়েছে৷