পিয়ংইয়ং: কিম জং উন-কে চিঠি দিয়েছেন ট্রাম্প। আর সেই চিঠিতে নাকি চমৎকার কিছু লেখা আছে। এমনটাই বলেছেন কিম।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছ থেকে ব্যক্তিগত চিঠি পেয়ছেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন। সেই চিঠির বিষয়বস্তু গুরুত্ব দিয়ে ভেবে দেখবেন বলে জানিয়েছেন। চিঠি পাওয়ার প্রতিক্রিয়ায় ট্রাম্পের ‘অসাধারণ সাহস’ এরও প্রশংসা করেছেন কিম।

চলতি মাসের শুরুর দিকে ট্রাম্প বলেছিলেন, কিম জং-উনের কাছ থেকে তিনি একটি সুন্দর চিঠি পেয়েছেন। তবে ট্রাম্পের চিঠি কখন, কিভাবে কিমের কাছে পৌঁছেছে তা প্রকাশ করা হয়নি। চিঠির বিষয়বস্তু কি তাও জানানো হয়নি এবং হোয়াইট হাউজও এখনও এই বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি।

গত ফেব্রুয়ারি মাসে ভিয়েতনামে ট্রাম্প-কিমের বৈঠক কোনও চুক্তি ছাড়াই শেষ হয়। এতে যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়ার মধ্যে আলোচনায় অচলাবস্থা দেখা দেয়। ট্রাম্প এবং কিমের ওই বৈঠক ভেস্তে যাওযার পর এ চিঠিটিই দু’দেশের মধ্যে সম্পর্কে প্রথম সবচেয়ে বড় অগ্রগতি।

আমেরিকা উত্তর কোরিয়াকে তার পারমাণবিক কর্মসূচ বাতিল করতে বলছে। আর উত্তর কোরিয়ার দাবি, তাদেরকে নিষেধাজ্ঞা থেকে রেহাই দেওয়া হোক। তবে দু’পক্ষের এ পাল্টাপাল্টি দাবির মধ্যেও গত কয়েক মাস ধরে কিম সম্পর্কে বেশ ইতিবাচক কথাবার্তাই বলছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

এই মাসের শুরুতে সাংবাদিকদের ট্রাম্প বলেন, কিমের নেতৃত্বে উত্তর কোরিয়া একটি ‘সম্ভাবনাময় দেশ’।