মুম্বই : ‘কিস দেশ মে হ্যায় মেরা দিল’ জনপ্রিয় হিন্দি ধারাবাহিকের অভিনেত্রী অদিতি গুপ্তার বিয়ে নিয়ে চর্চা শুরু হয়েছে চারিদিকে৷ বিয়ের মরশুমে দীপিকা-রণভীর, প্রিয়াঙ্কা-নিক, ইশা-পিরামল এঁদের বিয়ে নিয়ে গসিপ চলাকালীন সকলেই তাঁদের সোশ্যাল মিডিয়ায় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন৷

তবে অভিনেত্রী অদিতির বিয়ের খবর সামনে আসতেই কটাক্ষ শুরু হয়েছে তাঁর চরিত্র নিয়ে৷ ব্যবসায়ী কবীর চোপড়ার সঙ্গে বিয়ে হয়েছে অদিতির৷ বিয়ের ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হওয়ার পর নেটিজেনরা অদিতিকে ‘গোল্ড ডিগার’ বলে সম্বোধন করছে৷

পড়ুন: দেখে নিন টেলিভিশন অভিনেত্রী পারুলের বিয়ে

অদিতির বয়সের তুলনায় কবীরকে অনেকটাই বয়স্ক লাগছে, যার কারণে তাঁদের জুটি নিয়ে প্রথমে শুরু স্ক্রুটিনি৷ সাইবারবাসীদের কথায়, অদিতিকে এতো সুন্দর দেখতে, হিন্দি টেলিভিশন জগতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী, তিনি চাইলেই কোনও ড্যাশিং, হ্যান্ডসাম হাঙ্ককে বিয়ে করতে পারতেন৷

কবীরের সঙ্গে তাঁকে একেবারেই মানাচ্ছে না৷ এরপরই কিছু সংখ্যক মানুষেরা বলতে শুরু করে অদিতি নাকি আসলে টাকার জন্য বিয়ে করেছেন কবীরকে৷ কবীর বেশ ধনী পরিবারের ছেলে, সে নিজেও ব্যবসায়ী৷

তার উপর টেলিভিশন জগতেও ইনভেস্ট করেন কবীর৷ তাই অদিতি বেশি ভাবনা চিন্তা না করেই তাঁকে বিয়ে করার জন্য রাজি হয়ে গিয়েছেন৷ নিন্দুকদের অনুমান, অদিতি এখন যে সকল ধারাবাহিক করছে তাতে মুখ্য অভিনেত্রীর চরিত্রের অফার পাচ্ছেন না৷

পড়ুন: দেখে নিন কেমন সেজে উঠেছে অম্বানিদের ‘Antilla’

আর নায়িকাদের বয়স হয়ে গেলেও একটা প্রভাব কেরিয়ারের ওপরে৷ নিজের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত করার জন্য কোনও রিস্ক নেননি অদিতি৷ কবীরের পয়সা দেখেই তাঁকে বিয়ে করেছেন৷ যদিও অদিতির ভক্তরা এ কথা মানতে নারাজ৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.