প্রতীকী ছবি

কলকাতা: সুপ্রিম কোর্ট আগেই তিন তালাককে অবৈধ বলে রায় দিয়েছে৷ সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে তিন তালাক বিরোধী আইনও তৈরি করা হয়েছে৷ সেই আইন বিল আকারে পাস হয়ে গিয়েছে লোকসভায়৷ আজ, তা পেশ হবে রাজ্যসভাতেও৷ সেখানেও এই বিল পাস হয়ে গেলে ওই আইন কার্যকর হয়ে যাবে৷

তবুও তিন তালাক নিয়ে মন্তব্য থেমে নেই৷ সোমবার যেমন এই ইস্যুতে মুখ খুললেন বলিউডের অভিনেতা আলি ফজল৷ মাইক্রো ব্লগিং সাইট ট্যুইটারে সরাসরি এই বিলের বিরোধিতা করেছেন৷ তিন তালাক বিরোধী এই বিলকে একটি ফাঁদ বলেও ব্যাখ্যা করেছেন তিনি৷

এর ব্যাখ্যায় ট্যুইটারে তিনি লিখেছেন, কারও সঙ্গে আলোচনা না করেই এই বিল তৈরি করা হয়েছে৷ তিনি তো আর আইন তৈরির দায়িত্বে নেই৷ কিন্তু যাঁদের ঘাড়ে এই দায়িত্ব রয়েছে, তারা অন্তত একবার আলোচনা করতে পারতেন বলে মনে করেন অভিনেতা আলি ফজল৷ তাঁর কথায়, এভাবে অপরাধী হিসেবে স্বামীকে জেলে পাঠানো হলে তিন তালাকের জের এক-একটি পরিবার নষ্ট হয়ে যাবে৷

কেন অভিনেতা আলি ফজলের এমন মনে হচ্ছে, সেই ব্যাখ্যাও তিনি দিয়েছেন৷ জানিয়েছেন, তাৎক্ষণিক তিন তালাক সৌদি আরব, পাকিস্তান ও মিশরেও অবৈধ৷ কিন্তু সেখানে তিন তালাক দেওয়ার জন্য স্বামীকে শাস্তি দেওয়ার কোনও প্রতিবিধান নেই৷ অথচ ভারতে তৈরি হওয়া নতুন এই আইনে সেই ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে৷ কেন এমন করা হচ্ছে, ট্যুইটারের মাধ্যমে কার্যত সেই প্রশ্নই তুলেছেন আলি ফজল৷

আলি ফজলের এই ট্যুইট প্রকাশ্যে আসার পরেই ঝড় উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ অনেকেই তাঁর বক্তব্যের সমালোচনা করেছেন৷ তবে সেই সমালোচনার পরিপ্রেক্ষিতে এখনও পর্যন্ত কিছু বলেননি আলি৷