নিউজ ডেস্ক, কলকাতা: ২১শে জুলাইয়ের মঞ্চ থেকে তৃণমূল কর্মীদের উজ্জীবিত করার ডাক দিলেন রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী৷ এদিন মঞ্চে দাঁড়িয়ে শুভেন্দু বলেন কে রুখবে আমাদের? আমাদের সঙ্গে গণদেবতা রয়েছেন৷ মা মাটি মানুষের সরকারের পাশে রয়েছে সাধারণ মানুষের সমর্থন৷

এদিন তিনি বলেন রাজ্যে যে অপসংস্কৃতি নিয়ে আসার চেষ্টা চলছে, তা রুখতে হবে৷ তৃণমূল কর্মীরা চ্যালেঞ্জ নিয়ে উন্নয়নের লড়াইয়ে ফিরুন৷ কারণ কিছু শক্তি উন্নয়ন চায় না৷ সেই শক্তিগুলোর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান৷

আরও পড়ুন : ‘রাম কা নাম বদনাম না কারো … ‘ তৃণমূল গাইছে বিজেপি শুনছে

বিজেপিকে একহাত নিয়ে শুভেন্দু বলেন ভারতীয় জনতা পার্টি বাংলার সংস্কৃতি জানে না৷ যদি রাজ্যের সংস্কৃতির প্রতি তাঁদের বিন্দুমাত্র জ্ঞান থাকত তাহলে রাজ্যের গর্ব ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের মূর্তি তাঁরা ভাঙত না৷ সহজপাঠকে বিদ্যাসাগরের লেখা বলে গুলিয়ে ফেলত না৷

এদিন শুভেন্দু অভিযোগ করেন ব্যালটে ভোট হলে বিজেপি হারে, মেশিনে ভোট হলে বিজেপি জেতে৷ এখানেই পরিষ্কার, কোথায় কারচুপি হচ্ছে৷ উত্তরাখণ্ড, কর্ণাটকের নির্বাচনের কথা উল্লেখ করে বিজেপির কড়া সমালোচনা করেন শুভেন্দু অধিকারী৷

আরও পড়ুন : ‘কাটমানি’ গান নিয়ে বিতর্কের পরও তৃণমূলের মঞ্চে নচিকেতা

ব্যালট ফেরানোর দাবি এর আগেও তুলেছিলেন শুভেন্দু৷ বাঁকুড়ার এক দলীয় অনুষ্ঠানে তিনি বলেছিলেন ‘কে বলেছে আমরা হেরেছি। ইভিএমে ভোট হলে বিজেপি জেতে, আর ব্যালটে ভোট হলে বিজেপি হারে’। এদিনও তার ব্যতিক্রম হয়নি৷ শুভেন্দু অধিকারীর মত একই সুর ছিল এদিনের মঞ্চে উপস্থিত অন্যান্য তৃণমূল নেতার গলাতেও৷