আগরতলা: বর্তমানে সাধারণ মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ায় মারাত্মক রকম অ্যাক্টিভ। আর সেখানে ভাইরাল হল একটি ভিডিও। যা দেখে রীতিমতো চোখ কপালে উঠেছে সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে খোদ বন দপ্তরের। ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে সাপকে কেটে তাঁর মাংস খাওয়ার জন্য বিক্রি করা হচ্ছে।

জানা গিয়েছে, এ ভিডিও উত্তর ত্রিপুরা জেলার সীমান্ত বরাবর সিংলুম গ্রামের। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে খোলা বাজারে প্রকাশ্যেই বিক্রি হচ্ছে অজগরের মাংস। টিকিটিও দেখা যাচ্ছে না বনদপ্তরের। এই ভিডিও ভাইরাল হতেই রীতিমতো ক্ষুদ্ধ নানা পশুপ্রেমী সংগঠনের সদস্যরা। নড়েচড়ে বসে বনদপ্তরও।

জানা গিয়েছে, জম্পুই পাহাড় থেকে ৬ টি অজগর ধরে এনে ১০০০টাকা কেজি দরে বিক্রি করা হয় সেগুলির মাংস। সূত্রের খবর, শুধু অজগর না এভাবে প্রকাশ্যে বিক্রি চলে হরিণ, ব্যাঙ, কাচুয়া, মূল্যবান ময়না, টিয়া, ধনেশ ইত্যাদি প্রাণী। বছরের পর বছর সেখানে এই রেওয়াজ রয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। এরফলে ক্রমশই হারিয়ে যাচ্ছে এই প্রাণীগুলি।

যে ছয়টি সাপকে কাটা হয়েছে সেগুলি আকৃতিতে বেশ বড় বলেই খবর মিলেছে। এগুলির ওজন ছিল প্রায় ১ কুইন্টাল ৫০ কেজির কাছাকাছি। ১০০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করা হয় ওই মাংস। সমস্ত বিষয়টি বন দপ্তরকে জানানো হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

এই ঘটনার পরই এলাকা জুড়ে তীব্র চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। জানা যায়, স্থানীয় আসিবাসীরাই এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন। কাঞ্চনপুর মহকুমা শাসক চান্দিনি চান্দ্রন জানিয়েছেন বিষয়টি তাঁর নজরে এসেছে। এই ক্ষেত্রে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে ডি এফ ও। এস ডি এফ ও –কে এই বিষয়ে জানানো হয়েছে।