স্টাফ রিপোর্টার,সিউড়ি: ফের বীরভূমে গণধর্ষণ করা হল এক আদিবাসী মহিলাকে৷ বুধবার গভীর রাতে মহম্মদ বাজারের চরিচার জঙ্গলে ওই মহিলাকে গণধর্ষণ করা হয়৷ এই ঘটনায় পুলিশ তিন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে৷

বীরভূমে এই নিয়ে গত এক সপ্তাহে তিনটি গণধর্ষণের ঘটনা ঘটল৷ এর আগে পাড়ুইয়ে এক নাবালিকা ও এক গৃহবধুকে গণধর্ষণ করা হয়৷ বীরভূমে একের পর এক গণধর্ষণের ঘটনা বাড়তে থাকায় প্রশ্নের মুখে মহিলাদের নিরাপত্তা৷

জানা গিয়েছে, ওই নির্যাতিতার বাড়ি মহঃবাজার থানার দুবুনি গ্রামে৷ ঘটনাটি ঘটে বুধবার সন্ধ্যায়৷ নির্যাতিত মহিলা গ্রামের কয়েকজন মহিলা সঙ্গে গ্রামের পাশে চরিচার জঙ্গলে পাতা কুড়ানোর জন্য গিয়েছিলাম।অভিযোগ সেই সময় তিন জন তাকে গনধর্ষণ করে।

ঘটনায় পুলিশ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে। ধৃত যুবকরা হলেন বাবলু সরেন, আনন্দ সরেন এবং বাবুরাম সরেন। এদিকে নির্যাতিতা মহিলার মায়ের দাবি যাদেরকে ধরা হয়েছে তারা সকলেই তাদের আত্মীয়৷ ওই যুবকরা এ ধরনের কাজ করতে পারে না।

তবে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে ডাক্তারি রিপোর্ট ও ধর্ষণের প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। নির্যাতিতা সিউড়ি সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ওদিকে ধৃতদের ছেড়ে দেওয়ার দাবি জানায় স্থানীয় আদিবাসী নেতারা। তাদের আরও দাবি পুলিশ তদন্ত করে প্রকৃত দোষীদের গ্রেফতার করুক। ধৃত তিন জনকে আজ সিউড়ি আদালতে তোলা হবে।