ফাইল ছবি

লখনউ: প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কাছে সকলেই যে অসহায় তা যেন পের একবার প্রমাণ হয়ে গেল রবিবার৷ বিভিন্ন রাজ্যের বাসিন্দারা ঝড়-বৃষ্টিতে জেরবার৷ শুধঝুমাত্র উত্তরপ্রদেশেই ১৮জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে৷ আর এরই মাঝে উত্তরপ্রদেশের মথুরা থেকে বিজেপি সাংসদ অভিনেত্রী হেমা মালিনীও পড়লেন এই প্রাকৃতিক দুর্যোগে৷

পড়ুন: কিংবদন্তী ভারতীয় সঙ্গীতশিল্পীর মুকুটে যুক্ত হল নয়া পালক

শুধু তাই নয়, তাঁর কনভয় একটুর জন্য বড়সড় বিপদ থেকে রক্ষা পেল৷ কেন্দ্র সরকারের সবকা সাথ সবকা বিকাশ-এর বার্তা নিয়ে মথুরায় এক জনসভায় হাজির হয়েছিলেন তিনি৷ কিন্তু সভা শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ পরেই দুর্যোগের শুরু৷ তাই মাঝপথেই সেখান থেকে ফেরার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়৷

পড়ুন: স্বামীর জন্য সলমনের পরিবারের কাছে ক্ষমা চাইলেন নীতু

মথুরা থেকে তাঁর কনভয় বেরনোর কিছু পরেই হঠাৎই সামনে ভেঙে পড়ে একটি গাছ৷ একটুর জন্য দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পায় অভিনেত্রীর গাড়ি৷ এরপর সেই গাছ রাস্তা থেকে সরানো হয়৷ এদিকে সোমবারও ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা গিয়েছে৷ জারি করা হয়েছে সতর্কতাও৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.