মুম্বই: আজকাল সকলেই প্রায় ফেসবুক করেন৷ আর, নতুন অ্যাকাউন্ট খোলার সময় দিতে হয় কনট্যাক্ট নম্বর৷ কিন্তু, জানেন কী ফেসবুক ইউজারদের কনট্যাক্ট নম্বর শেয়ার করে থাকে বিজ্ঞাপনদাতাদের সঙ্গে, যাতে তারা ইউজারদের বিষয়ে যাবতীয় খুঁটিনাটি তথ্যকে পরীক্ষা করতে পারেন৷ সেখান থেকেই ব্যবহারকারীদের পছন্দ ও আগ্রহ সম্পর্কে ধারণা করা হয়ে থাকে৷

সেখানে ইউজাররা নিজেদের শেয়ার করা, লাইক করা বিষয় সম্পর্কিত বিভিন্ন অ্যাড দেখতে পাবেন৷ আর, সেই পছন্দের উপর ভিত্তি করেই বিভিন্ন ধরণের বিজ্ঞাপন দেখতে পাবেন ইউজার৷ তাই, বিরক্তিকর বিজ্ঞাপন থেকে বাঁচতে এখনই ডিলিট করুন নিজের নম্বরটিকে৷ ফলো করুন নির্দিষ্ট স্টেপগুলি৷

ফেসবুকে লগ-ইন করুন৷ সেটিংসে গিয়ে জেনারেল সেটিংস অপশনটিতে ক্লিক করুন৷ সেখান থেকেই রিমুভ অপশনটিকে সিলেক্ট করলে একটি ওটিপি নম্বর আসবে৷ সেটিকে দিয়ে কনফর্ম করুন৷ কনফর্ম বাটনে ক্লিক করলেই সম্পূর্ণ হবে পুরো প্রক্রিয়াটি৷ পার্মানেন্টভাবে ফেসবুক থেকে ডিলিট হয়ে যাবে নম্বরটি৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।