প্রতীতি ঘোষ,বারাকপুর: উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বারাকপুর আদালতের আইনজীবীরা বৃহস্পতিবার একদিনের কর্মবিরতি পালন করলেন৷ আদালতকে নতুন ভবনে স্থানান্তরিত করার দাবিতে তাদের এই আন্দোলন৷ অবশেষে আন্দোলনের জেরে বারাকপুর মহকুমা আদালতকে নতুন ভবনে স্থানান্তরিত করার সিদ্ধান্ত নিল প্রশাসন৷

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বারাকপুর মহকুমা আদালতের আইনজীবীরা কর্মবিরতি শুরু করেন৷ ওই দিন সন্ধ্যায় কলকাতা হাইকোর্টের ভারপ্রাপ্ত বিচারক হ্যারিস ট্যান্ডন বারাকপুর মহকুমা আদালতের আইনজীবীদের সঙ্গে আলোচনায় বসেন৷ সেই বৈঠকেই কেটে গেল জটিলতা৷ তারপর ৮ ঘণ্টা পর তাদের কর্মবিরতি তুলে নেন আইনজীবীরা৷

বৈঠক শেষে বারাকপুর বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সুশান্ত রায় জানিয়েছেন, পয়লা বৈশাখে বারাকপুর মহকুমা আদালত বারাকপুর এস এন ব্যানার্জি রোডের উপর নতুন ভবনে স্থানান্তরিত করা হবে৷

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বারাকপুর মহকুমা আদালতের সমস্ত কাজকর্ম বন্ধ করে আন্দোলন শুরু করেছিল বারাকপুর মহকুমা আদালতের শতাধিক আইনজীবী, ল ক্লার্ক, আদালতের কর্মীরা৷ তাদের দাবি ছিল, বারাকপুর মহকুমা আদালতকে বারাকপুর প্রশাসনিক ভবন সংলগ্ন নতুন ভবনে অবিলম্বে স্থানান্তরিত করতে হবে৷ বারাকপুর এস এন ব্যানার্জি রোডের উপর আদালতের ঝাঁ চকচকে নতুন ভবনটি প্রায় দু’বছর আগেই তৈরী করে ফেলেছিল রাজ্য সরকার৷ খরচ হয়েছে প্রায় ২০ কোটি টাকা৷

তবে নতুন ভবনে আসবাবপত্র না আসায় বারাকপুর আদালতকে স্থানান্তরিত করা যাচ্ছিল না৷ রাজ্য সরকারের পূর্ত দফতর বারাকপুর আদালতের নতুন ভবনের আসবাবপত্র তৈরীর দ্বায়িত্ব নিয়েছে৷ এদিকে দীর্ঘদিন ধরে বারাকপুর মহকুমা আদালতের কাজকর্ম প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে আইনজীবীরা বারাকপুর থানা সংলগ্ন বারাকপুর মহকুমা আদালতের পুরনো ভবনে করতে বাধ্য হচ্ছিল৷

পুরনো ভবনের সিলিং মাঝে মাঝেই খসে পরছিল৷ এমনকি পুরনো ভবনে বিচার চলাকালীন সময়ে একটি বিষধর সাপও বেরিয়ে পড়েছিল সম্প্রতি৷ এই পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পেতে বাধ্য হয়ে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে আদালতের সমস্ত কাজকর্ম বন্ধ করে দিয়েছিল আইনজীবীরা৷ আদালতের গেট আটকে বিক্ষোভ দেখায় সমস্ত আইনজীবীরা৷ ব্রিটিশ আমলের শতবর্ষ প্রাচীন এই আদালতের বিভিন্ন ঘর গুলি সংস্কারের অভাবে ভগ্নদশা প্রাপ্ত হয়ে পড়েছিল৷

বারাকপুর বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সুশান্ত রায় বলেন, “আমরা আন্দোলন তুলে নিচ্ছি৷ ১৫ ই এপ্রিল আদালত স্থানান্তরিত করা হবে বলে বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ আগামী ৩১ মার্চের মধ্যে বারাকপুর মহকুমা আদালতের নতুন ভবনে সমস্ত আসবাবপত্র চলে আসবে এবং ১৫ই এপ্রিল বারাকপুর এস এন ব্যানার্জি রোডে নতুন ভবনে বারাকপুর মহকুমা আদালত স্থানান্তরিত করা হবে৷ এই সিদ্ধান্তের পরই বারাকপুর মহকুমা আদালতের সমস্ত আইনজীবীরা একযোগে কর্মবিরতি তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন৷